জীবননগর রায়পুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে : ভাতিজার হাতে চাচা রক্তাক্ত জখম

218

রায়পুর প্রতিনিধি: জীবননগর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের বাড়ান্দি গ্রামের জমি জমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আপন ভাতিজার হাতে রায়পুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুল মালেক রক্তাক্ত জখম হয়েছেন। ঘটনার বিবরনে জানা যায়, গতকাল বুধবার সকাল ১১টার দিকে জীবননগর উপজেলার রায়পুর বাজারে রায়পুর ইউপি সদস্য আব্দুল মালেক (৫৫) কে জনসম্মুখে একই গ্রামের মৃত মাহাতাব উদ্দিনের ছেলে তারই আপন ভাতিজা আজিজুল হক (৩৭), আনোয়ার হোসেন (৫৫), আমির হোসেন (৪০) পূর্বপরিকল্পিতভাবে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ের জের ধরে উভয়পক্ষ বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে দেশীয় অস্ত্র রড, হাসুয়া দিয়ে মালেক মেম্বরকে প্রকাশ্য দিবালোকে সবার সামনে এলোপাতাড়িভাবে আঘাত করতে থাকে। পরে আব্দুল মালেক মেম্বরকে স্থানীয় জনতা রক্তাক্ত জখম অবস্থায় উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে মালেক মেম্বরের ছেলে রিপন জানান, জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আমার চাচাতো ভাইদের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিল। তারই জের ধরে আমার পিতাকে একা পেয়ে আজিজুল, আনোয়ার ও আমির নামের কয়েকজন যুবক রায়পুর বাজারে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে আঘাত করে। পরে লোকমুখে আমরা সংবাদ শুনে ঘটনাস্থলে যেয়ে আমার পিতাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য দ্রুত জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। উক্ত বিষয় সম্পর্কে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উপরোক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছিল।