জিন্নাহ’র দ্বি-জাতি তত্ত্বের বাস্তবায়ন ঘটছে ভারতে!

112

বিশ্ব প্রতিবেদন
ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) নিয়ে আবারও মুখ খুলেছেন কংগ্রেসের জ্যেষ্ঠ নেতা শশী থারুর। রবিবার জয়পুর সাহিত্য উৎসবে তিনি বলেন, ‘যদি নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ), জাতীয় নাগরিক নিবন্ধক (এনআরসি) এবং এনপিআর দেশব্যাপী কার্যকর হয়, তবে পাকিস্তানের প্রতিষ্ঠাতা মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ’র দ্বি-জাতি তত্ত্বের জয় হবে।’ শশী থারুর বলেন, ‘জিন্নাহ এখনও জিতেননি, তবে এবার জিততে চলেছেন। সিএএ’র পর যদি এনপিআর এবং এনআরসি চালু হয়, তবে জিন্নাহর জয় সম্পূর্ণ হবে। তিনি আরও বলেন, জিন্নাহ যেখানেই থাকুন না কেন, এসব দেখলে অবশ্যই বলতেন, তিনি ঠিকই বলেছিলেন যে, মুসলমানদের জন্য আলাদা দেশের প্রয়োজন কারণ হিন্দুরা মুসলমানদের গ্রহণ করবেন না।’ এর আগেও তিনি বলেছিলেন, সংসদে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হলে মহাত্মা গান্ধীর পরিবর্তে জিন্নাহর আদর্শের জয় হবে, এবং ভারত, পাকিস্তানের হিন্দুত্ববাদী সংস্করণে পরিণত হবে।
উল্লেখ্য, গত ১২ ডিসেম্বর বিতর্কিত সিএএ বিলটি সংসদে পাশ হওয়ার পর থেকে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে গোটা ভারত। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে (সিএএ) আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে ২০১৫ সালের আগে আগত অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। সমালোচকদের মতে, এই আইন বৈষম্যমূলক এবং সংবিধানে বর্ণিত দেশের ধর্মনিরপেক্ষ ভাবমূর্তির পরিপন্থী।