চ্যালেঞ্জ নিলেন এবং নীতিকথা শোনালেন সালমান

40

বিনোদন ডেক্স:
অনলাইন মাধ্যমে চলছে হ্যাশট্যাগ বোতল ক্যাপ চ্যালেঞ্জের জ্বর! সেই জ্বরে পোড়েননি, এমন মানুষের সংখ্যা দিন দিন কমছে। বলিউড তারকা সালমান খানের নজর এড়ায়নি সেই চ্যালেঞ্জ। কিন্তু কী করলেন বলিউডের ভাইজান? তিনি কি চ্যালেঞ্জটা গ্রহণ করলেন? নাকি চ্যালেঞ্জের মুখে পানি ঢেলে জ্বরের তাপমাত্রা খানিক কমালেন? তার আগে বলে নেওয়া ভালো, কী এই বোতল ক্যাপ চ্যালেঞ্জ। কে, কবে, কীভাবে শুরু করল এই বোতল ক্যাপ চ্যালেঞ্জ, তা বলা মুশকিল। তবে বলিউড তারকা পরিণীতি চোপড়া বর্তমানে ব্যস্ত আছেন ব্যাডমিন্টন প্রশিক্ষণ নিতে। কারণ ভারতের বিখ্যাত ব্যাডমিন্টন তারকা সাইনা নেহওয়ালের বায়োপিক ‘সাইনা’তে সাইনা হবেন পরিণীতি। সেই প্রশিক্ষণের মাঝে ৬ জুন তিনি ইনস্টাগ্রামে একটা ভিডিও শেয়ার করেন। সেই ভিডিওতে দেখা যায় ব্যাডমিন্টন ব্যাটের হাতল দিয়ে একটি বোতলের মুখ খুললেন তিনি। তার পরই তিনি সবাইকে এই চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন, একটু ভিন্নভাবে বোতলের ছিপি খুলে দেখাতে। অনলাইন মাধ্যমে ইতিমধ্যে বলিউডের অনেক তারকাই গ্রহণ করেছেন এই চ্যালেঞ্জ। টাইগার শ্রফ, কুনাল খেমু, সিদ্ধান্ত চতুর্বেদি, সুস্মিতা সেনসহ অনেকেই সফলভাবে সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছেন। আর তাঁদের ভিডিওগুলো শেয়ার করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সম্প্রতি সালমান খানও সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে গতকাল সন্ধ্যায় টুইটারে একটা ভিডিও দিলেন। বোতল ক্যাপ চ্যালেঞ্জ শেষে সালমান খানবোতল ক্যাপ চ্যালেঞ্জ শেষে সালমান খান৩১ সেকেন্ডের সেই ভিডিওতে শুরুতেই দেখা মেলে চিরচেনা ‘শার্টলেস’ সালমান খানকে। এরপর তাঁকে দেখা যায়, সামনে বোতল রেখে নানান কায়দা কসরত করতে। তারপর সেসব শেষে তিনি যা করলেন, তা এক কথায় অনবদ্য। প্রথমে ফুঁ দিয়ে সরালেন বোতলের ছিপি। সুন্দরমতো যিনি পানির বোতল হাতে ধরে রেখেছিলেন, তার কাছ থেকে পানি নিলেন। তারপর দিব্যি হাত দিয়ে পানির বোতলের মুখের ছিপি খুলে ঢক ঢক করে পানি খেয়ে যা বললেন, ‘বিষয়টা এমনই, অযথা ক্লান্ত হয়ো না। পানির অপচয় করো না।’ এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে গিয়ে পানিভরা বোতলের মুখের ছিপি খোলার ফলে কিছু পানি ছিটকে পড়ে। বলিউডের এই ভাইজান সেই দিকটিতেই ইঙ্গিত দিয়েছেন ৩১ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে। মূল বার্তাটি হলো, নিজের শক্তি অন্য কোনো গঠনমূলক কাজে খরচ করুন আর পানির অপচয় বন্ধ করুন। সালমান বর্তমানে ‘ভারত’ ছবির সফলতা উপভোগ করছেন। এখন পর্যন্ত ১০০ কোটি রুপি খরচ করে বানানো ‘ভারত’, ভারত ও ভারতের বাইরে থেকে তুলে এনেছে ৩১৫ কোটি রুপি। সালমান খান আপাতত বিয়িং স্ট্রং ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে ভারতের বিভিন্ন স্থানে ৩০০টি জিমনেসিয়াম বানানোর উদ্যোগ নিয়ে ব্যস্ত আছেন। এরপর তাঁকে দেখা যাবে সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘ইনশাল্লাহ’ সিনেমায়। ১৯৯৯ সালে ‘হাম দিল দে চুকে সানাম’ ছবির দুই দশক পর আবারও এই পরিচালকের সঙ্গে কাজ করবেন সালমান খান। এই ছবিতে সালমান খানের বিপরীতে দেখা যাবে আলিয়া ভাটকে।