চুয়াডাঙ্গা শহরে সংগ্রাম টেলিকমে মোবাইল কিনে বিপত্তি গতিরোধ করে প্রকাশ্যে ছিনতাই!

235

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা শহরে প্রকাশ্যে দিবালোকে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে চুয়াডাঙ্গা রেল গেটেIMG_20160927_221545র অদূরে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা তিতুদহের ইউনিয়নের বড়শলুয়া গ্রামের বসতি পাড়ার মোঃ হাজির ছেলে হাসান আল মামুন (২২) ও একই গ্রামের জিনারুলের ছেলে শামীম (২১) দু’জন চুয়ডাঙ্গা পৌরসভার পাশে সংগ্রাম টেলিকম থেকে স্যামসাং ব্যান্ডের একটি মোবাইল ১৪হাজার দিয়ে কিনে বাড়ি যাওয়ার পথিমধ্যে রেল গেটের অদূরে পৌছাঁলে ৩টা মোটরেসাইকেল যোগে ৬জন তাদের গতিরোধ করে এবং প্রকাশ্যে তাদেরকে জোর করে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে নিয়ে চুয়াডাঙ্গা বিএডিসি ফার্মের ভেতরে নিয়ে লাঠি ও জুতা দিয়ে প্রচন্ড মারধর করে তাদের কাছে থাকা নতুন মোবাইল ও নগত ৫০০০টাকা নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে তারা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসান আল মামুনকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে এবং শামীম প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছে। আহত শামীম বলেন, আমরা মোবাইল কিনে রেল গেইটের অদূরে পৌছাঁলে বড় শালুয়ার ছাত্তারের ছেলে তানসিল, উজ্জল ও শুভসহ ৬জন আমাদেরকে মোটরসাইকেলে জোর করে তুলে নিয়ে যায় এবং আমাদের খুব মারধর করে কাছে থাকা নতুন মোবাইল ফোন নগত ৫০০০ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) তোজাম্মেল হক বিষয়টি এড়িয়ে যান এবং কিছু জানেন না বলে এই প্রতিবেদককে জানান। তবে এ ছিনতাইয়ের বিষয়ে স্থানীয়রা কেউ কেউ বলেন, তানসিলের সাথে হাসান আল মামুনের সাথে পূর্ব শত্র“তার কারণে এমন প্রকাশ্যে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।