চুয়াডাঙ্গা শহরের প্রাণকেন্দ্র শহীদ হাসান চত্বরকে আনা হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় সকলের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখতে ও পৌরবাসীর নিরাপত্তার স্বার্থেই এ উদ্যোগ

426

eddede

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা শহরের প্রাণকেন্দ্র শহীদ হাসান চত্বরকে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার তত্বাবধানে ও জেলা পুলিশের নিয়ন্ত্রনে এই সিসিটিভি ক্যামেরার স্থাপনের কাজ ক্রমান্বয়ে পুরো শহরজুড়ে সম্পন্ন হবে বলে জানা গেছে। ইতোমধ্যে পৌর এলাকার ভিমরুল্লাহে অবস্থিত চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারের সামনে থেকে শহরের কোর্ট মোড় পর্যন্ত সিসিটিভি ক্যামেরার আওতাভুক্ত ছিলো গতকাল শহরের প্রাণকেন্দ্র শহীদ হাসান চত্বরকে এই আওতায় আনা হয়। জানা গেছে, গতকাল শহরের নিরাপত্তা জোরদারসহ আইন শৃঙ্খলার প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখতে শহীদ হাসান চত্বরে ট্রাফিক আইল্যান্ডের সাথে লাগানো হয়েছে চারটি অত্যাধুনিক মানের ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা কর্তৃক এই ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে তা নিয়ন্ত্রণ করবে চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ। এব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবাইদুর রহমান চৌধুরী (জিপু) এ প্রতিবেদককে বলেন, পৌর বাসীর নিরাপত্তার স্বার্থে এ উদ্যেগ নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে পৌরসভা কার্যালয় সহ শহরের শহীদ হাসান চত্বরে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। পরিকল্পনা আছে শহরের সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ স্থানেই সিসি টিভি ক্যামেরা লাগানো হবে। ফলে পৌরবাসী সহ পৌরসভার অভ্যান্তরে চলাচলকারী সকলের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখতে পারবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহীনি। সাথে সাথে বিভিন্ন অপ্রিতিকর ঘটনা মোকাবেলা ও দ্রুত অপরাধীকে সনাক্ত করা সম্ভব হবে। চুয়াডাঙ্গার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন বলেন, চুয়াডাঙ্গা শহরের প্রানকেন্দ্র শহীদ হাসান চত্বরে সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপনের ফলে অপরাধ সংগঠিত হবে কম। ফলে শহরবাসী যেমন শান্তিতে থাকবে ঠিক তেমনী আইনশৃঙ্খলার আরো উন্নত সাধিত হবে। এছাড়া সিসিটিভি গুলোর নিয়ন্ত্রণ পুলিশের অধীনে থাকায় কোনো অপরাধ সংঘটিত হলে তা দ্রুত মোকাবেলা করতে পুলিশের বেগ পেতে হবে না।