চুয়াডাঙ্গা জেলার ব্লাক বেঙ্গল গোটের সুনাম সারা দেশে

71

ব্লাক বেঙ্গল গোট উন্নয়ন মেলায় এমপি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি বলেছেন, চুয়াডাঙ্গা জেলার ব্লাক বেঙ্গল গোটের সুনাম সারা দেশে। স্বাদের দিক দিয়ে এই জেলার ব্রান্ডিং এই ব্লাক বেঙ্গল গোট অতুলনীয়। একবার জাতীয় সংসদের ইফতার পার্টিতেও ব্লাক বেঙ্গল গোটের সুনাম করা হয়েছে। বাইরে থেকে কেউ এলে আগে, বলে ছাগলের মাংস খাওয়াবেন তো। আসলে এই জেলার সুনাম এটি। এই ছাগলটির প্রজাতিকে টিকিয়ে রাখতে হবে। ক্রসিং হয়ে আসল প্রজাতি যাতে হারিয়ে না যায়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার জেলার ব্রান্ডিং ব্ল্যাক বেঙ্গল গোটের উন্নয়ন ও পুষ্টির চাহিদা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বেঙ্গল গোট মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
এমপি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি আরো বলেন, ‘এই ছাগল পালনে চুয়াডাঙ্গা জেলায় সরকারি আর্থিক সহায়তা ও ঋণ প্রদানের কার্যক্রমকে আরো বেশি গতিশীল করতে আমি তাগিদ দিবো। প্রকৃত কৃষক যাতে আর্থিক সহায়তা পাই, সে বিষয়েও কার্যক্রম পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। এখন আমাদের দায়িত্ব আমাদের জেলার ব্রান্ডিং-এর মানকে আরো বেশি বৃদ্ধি করা।’
এরআগে, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস চত্বরে মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, প্রত্যেকটা সেক্টরে উন্নয়নের ছোয়া লাগাতে হবে। যেখানে সম্ভাবনা যত বেশি, সেখান নিয়ে তত বেশি ভাবতে হবে। ব্লাক বেঙ্গল গোটের খামার করা সহজ এবং লাভজনক। একটি সুখবর হচ্ছে, মুজিব শর্তবর্ষে চুয়াডাঙ্গা জেলায় ব্লাক বেঙ্গল গোটের শত খামার স্থাপন করা হবে। জেলা ব্রান্ডিংকে টিকিয়ে রাখা এবং এর মান উন্নয়নে কাজ করা হবে। ইতিমধ্যে আমি ক্ষুদ্র ঋণ কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করার জন্য সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে বলেছি। ভালোভাবে বাজারজাত করার জন্যই সহযোগিতা করা হবে। এই জেলার ব্লাক বেঙ্গল গোট সারা দেশে বিখ্যাত। আমার বন্ধুসহ অনেকের জন্যই এই ছাগল কিনে আমাকে পাঠাতে হয়।
সকালে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান, সাবেক অধ্যক্ষ সিদ্দিকুর রহমান ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান মাসুম। পরে, বেলা আড়াইটার দিকে সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের খুলনা বিভাগীয় উপপরিচালক ডা. শাহাবুদ্দিন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাংগাঠনিক সম্পাদক মুন্সী আলমগীর হান্নান।
উদ্বোধনী ও পুরষ্কার বিতরণ উভয় অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. এএইচএম. শামীমুজ্জামান এবং সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. গোলাম মোস্তফা।
এসময় চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আব্দুল হান্নান, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারসহ সদর উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। মেলায় ২৫টি স্টলে ব্লাক বেঙ্গল গোট প্রদর্শিত হয়। ছাগল পালনকারী তাদের খামারের ছাগল প্রদর্শন করেন।