চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরের বিশিষ্ট জনেরা কে কোথায় ঈদ করছেন

456

নিজস্ব প্রতিবেদক: মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব ঈদুল ফিতর। আপনজনের সাথে ঈদ উদযাপন করতে নাড়ীর টানে সবাই আসছেন নিজ গন্তব্যে। এবার জেলার বিশিষ্টজনেরা অধিকাংশই ঈদ উদযাপন করতে নিজ এলাকায় ফিরেছেন। চুয়াডাঙ্গা জেলার বিশিষ্টজনেরা কে কোথায় ঈদ উদযাপন করবেন এ নিয়ে আমাদের বিশেষ প্রতিবেদন।
জন প্রতিনিধিরা কোথায় ঈদ করবেন…………….
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, জাতীয় সংসদের হুইপ, বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন, এমপি পৌর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে ১ম জামাতে পরিবারের সদস্য ও নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে ঈদের নামাজে অংশ নেবেন। নামাজ শেষে মুসুল্লিদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় পরবর্তী চুয়াডাঙ্গা কবরী রোডস্থ নিজ বাসভবনে ফিরে প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারী, নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর তাঁর নিজ গ্রাম রঘুনাথপুর ঈদগাহ ময়দানে ঈদ-উল-ফিতরের নামাজ আদায় করবেন বলে জানা গেছে। সেখানে নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন তিনি। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সেখ সামসুল আবেদিন খোকন আলমডাঙ্গা দারুস সালাম ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়বেন। এরপর পরিবারের সদস্যদের সাথে নিয়ে কবর জিয়ারত শেষে নিজ বাড়িতে ফিরে নেতাকর্মীদের সাথেই বেশি সময় দেবেন বলে জানান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান। চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু পৌর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে নামাজ আদায় শেষে বাবার কবর জিয়ারত করবেন। এরপর সরকারি শিশু পরিবারের সদস্যদের সাথে কূশল বিনিময় ও দুপুরের খাবার খাবেন। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আ.লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আসাদুল হক বিশ্বাস আলুকদিয়া মনিরামপুরে নিজগ্রামে ঈদগাহে নামাজ আদায় করবেন। আলমডাঙ্গা পৌর মেয়র হাসান কাদির গণু এরশাদপুরস্থ নিজ গ্রামের ঈদগাহে নামাজ আদায় করবেন। দর্শনা পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান আবহাওয়া খারাপ থাকলে আন্তর্জাতিক রেল ষ্টেশন চত্ত্বরে ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়বেন। পরবর্তী সময় নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের পৌরবাসীদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হবেন। জীবননগর পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম জীবননগর কেন্দ্রীয় ঈদগাহে নামাজ আদায় করবেন। আলমডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা হেলাল উদ্দিন ঈদ উদযাপন করবেন নিজ উপজেলাধীন কুমারী গ্রামে। দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান মাওলানা আজিজুর রহমান জয়রামপুর পুরাতন কাউন্সিল পাড়াস্থ তাঁর নিজ গ্রামের ঈদগা ময়দানে ঈদের নামাজে ইমামতি করবেন। এরপর দলীয় নেতাকর্মী, শুভাকাঙ্খি, সাধারণ জনগণের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ে ব্যস্ত থাকবেন তিনি। জীবননগর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ অমল জীবননগর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়বেন। এরপর কবর জিয়ারত শেষে নিজ বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মী, শুভাকাঙ্খি, সাধারণ জনগণের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।
প্রশাসনিক কর্মকর্তাগণের ঈদ উদযাপন কোথায় হচ্ছে…………….
চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ মোহা. রবিউল ইসলাম মেহেরপুর জেলার গাংনীতে পৈতৃক বাড়িতে ঈদ উদযাপন করবেন। সকালে স্থানীয় ঈদগাহে নামাজ আদায় শেষে প্রতিবেশী ও নিকটাত্মীয়দের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। ঈদের ছুটি তিনি পরিবারের সাথেই কাটাবেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ নিজ কর্মস্থল চুয়াডাঙ্গায় ঈদ করবেন। সকাল ৮টায় টেনিস মাঠে (ডিসি অফিস) ঈদের নামাজ আদায় করবেন। আবহাওয়া খারাপ থাকলে কোর্ট জামে মসজিদেও নামাজ পড়তে পারেন। নামাজ শেষে সরকারি শিশু পরিবারের সদস্যদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। পরে হাসপাতাল ও জেলখানা পরিদর্শনে যাবেন। দুপুরে জেলার পুনর্বাসিত (ভিক্ষুক) ব্যাক্তিদের নিয়ে চুয়াডাঙ্গা সার্কিট হাউজে দুপুরের খাবার খাবেন। এরপর বাসভবনে ফিরে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। রাতে পরিবারের সদস্যদের সাথে ঈদ আনন্দে অংশ নেবেন। চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এ.বি.এম মাহমুদুল হক চুয়াডাঙ্গায় ঈদ করবেন। নামাজ পড়বেন টেনিস মাঠে (ডিসি অফিস)। এরপর পরিবারের সদস্যদের সাথে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করে নেবেন। সিভিল সার্জন ডা.রওশন আরা বেগম চুয়াডাঙ্গার সন্তান এবং তাঁর কর্মস্থল এ জেলায়। সেইসূত্রে তিনি জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলাধীন গ্রামের বাড়িতে ঈদ উদযাপন করবেন। পুলিশ সুপার নিজাম উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তরিকুল ইসলাম চুয়াডাঙ্গায় ঈদ করছেন। সকালে পুলিশ সদস্যদের সাথে পুলিশ লাইন্স মাঠে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। এরপর তাদের সাথেই ঈদ উপলক্ষে বড় খানায় অংশ নেবেন। পরবর্তী সময় পরিবারের সদস্যদের সাথে সময় কাটাবেন। চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবি’র অধিনায়ক লে.কর্ণেল রাশিদুল আলম, চুয়াডাঙ্গা জাফরপুরস্থ বিজিবি’র ব্যাটালিয়ান সদর দপ্তর ঈদগাহ ময়দানে সৈনিকদের সাথে নামাজ পড়বেন ও কূশল বিনিময় করবেন। নামাজ শেষে বিভিন্ন ক্যাম্পে কর্তব্যরত বিজিবি’র ক্যাম্প কমান্ডার ও সৈনিকদের সাথে দেখা করবেন এবং শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। দুপুরে ব্যাটালিয়ান সদরের সকল সৈনিকদের নিয়ে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেবেন। ব্যস্ত সময় শেষে পরিবারের সাথে দিনটি উৎযাপন করবেন তিনি।
রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা কোথায় ঈদ করছেন…………….
কেন্দ্রীয় বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু চুয়াডাঙ্গায় ঈদ করবেন। নামাজ পড়বেন বড় বাজার জামে মসজিদে। নামাজ শেষে প্রয়াত মা-বাবা ও আত্মীয় স্বজনদের কবর জিয়ারত করবেন। এরপর সারাদিন শেখ পাড়াস্থ নিজ বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্খিদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করবেন। রাতে পরিবার পরিজনদের সাথে ঈদ উৎসবে সামিল হবেন। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজাদুল ইসলাম আজাদ তার নিজ গ্রামের ঈদগাহ ময়দান ঈশ্বরচন্দ্রপুরে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি খুস্তার জামিল পৌর কেন্দ্রীয় ঈদগাহে জাতীয় সংসদের হুইপ ছেলুন জোয়ার্দ্দারের সাথে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। জেলা আ.লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সাবেক পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন তাঁর মেজো ভাই জাতীয় সংসদের হুইপ ছেলুন জোয়ার্দ্দারের সাথে পৌর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে নামাজ আদায় করবেন। জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক মাহফুজুর রহমান মনজু আবহাওয়া খারাপ থাকলে আর্ন্তজাতিক রেল ষ্টেশন চত্ত্বরে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করবেন।  জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস চুয়াডাঙ্গা বুজরুকগড়গড়ি মাদ্রাসায় অনুষ্ঠিত জামাতে ঈদের নামাজ পড়বেন। পরে নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্খিদের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। জেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহ্বায়ক শিল্পপতি আলহাজ্ব মাহমুদ হাসান খান বাবু এবার স্ব পরিবারে দেশের বাইরে ঈদ করবেন বলে জানা গেছে। জেলা বিএনপির অন্যতম সদস্য মো. শরীফুজ্জামান শরীফ ঈদ করছেন দেশের বাইরে। ওমরাহ হজ পালনে তিনি মক্কা ও মদিনায় অবস্থান করছেন। আজ সকাল ৬টায় মদিনায় মসজিদে নববীতে ঈদের নামাজ আদায় শেষে জান্নাতুল বাকীতে কবর জিয়ারত করবেন। পরে ওমরাহ পালনের উদ্দেশ্যে মক্কায় রওনা হবেন। সেখানে ওমরাহ পালন শেষে মদিনায় ফিরে এসে ২৮জুন বুধবার সৌদীর স্থানীয় সময় রাত ১১টার সময় হোটেল ত্যাগ করবেন পরদিন সন্ধ্যায় দেশে পৌছাবেন বলে জানা যায়। বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী চুয়াডাঙ্গা জেলা আমির আনোয়ারুল হক মালিক নিজ মোমিনপুর ইউনিয়নের ইউনিয়নের আমিরপুর গ্রামের ঈদগাহে নামাজ শেষে কবর জিয়ারত করবেন।  সেক্রেটারী মো. রুহুল আমিন নামাজ পড়বেন জীবননগর উপজেলার নিজ গ্রাম ধোপাখালী ঈদগাহ ময়দানে। নামাজ শেষে নেতাকর্মী ও এলাকাবাসীর সাথে কূশল বিনিময় করবেন। দুপুরের পর সাক্ষাত করবেন দলের নির্যাতিত, আহত, অসুস্থ নেতাকর্মীসহ যারা জেলে রয়েছে তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পরিবারবর্গের সাথে। ঈদের দিনটি তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের জন্যই উৎসর্গ করতে চান। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহায়মেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক পৌর কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ১ম জামাতে অংশ নেবেন। সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ একই ঈদগাহে ২য় ঈদের জামাতে অংশ নেবেন। জেলা ছাত্রলীগের এ দুই নেতা ঈদের দিনটা নেতাকর্মীদের সাথেই কাটাবেন।

জেলার বিশিষ্টজনেরা কোথায় ঈদ করবেন…………….
চুয়াডাঙ্গা জেলার কৃতি সন্তান, সাহিদ গ্রুপের চেয়ারম্যান, সিঙ্গাপুর-বাংলাদেশ সোসাইটি’র উপদেষ্টা আলহাজ্ব সাহেদুজ্জামান টরিক পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সিঙ্গাপুরে ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করবেন। সিঙ্গাপুরের মালাবরমর মসজিদে আজ সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিতব্য জামাতে নামাজ পড়বেন। সিঙ্গাপুরস্থ বাংলাদেশ হাউজের হাইকমিশনারের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। সন্ধ্যায় তাঁর নিজ বাসভবনে ঈদ আয়োজনে অংশ নেবেন সিঙ্গাপুরের হাইকমিশনার ডেরী ক্লসহ সিঙ্গাপুরস্থ প্রবাসী বাঙালী ও বিশিষ্ট জনেরা। চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি আজাদ মালিতা নামাজ পড়বেন আলিয়া মাদ্রাসায়। দৈনিক সময়ের সমীকরণ’র প্রধান সম্পাদক নাজমুল হক স্বপন চাঁদমারী মাঠে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। আবহাওয়ার কারণে চাঁদমারী মাঠে নামাজে বিষœ ঘটলে কোর্ট মোড় জামে মসজিদে নামাজ পড়তে পারেন। দৈনিক মাথাভাঙ্গা’র সম্পাদক-প্রকাশক সরদার আল আমিন নামাজ পড়বেন নিজগ্রাম দৌলতদিয়াড় সরদার পাড়ায়।
মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে…………………,
মেহেরপুরের এমপি, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ কে কোথায় ঈদুল আযহা নামাজ পড়বেন তা কৌতুহলি মানুষের জানার আগ্রহের কমতি নেই। এবছরের ঈদুল ফিতরে মেহেরপুরের এমপি, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ নিজ নিজ এলাকায় নামাজ পড়বেন।
মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য  ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক ফরহাদ হোসেন এবারে ঈদের নামাজ পড়ছেন কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে। নামাজ শেষে সবার সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের সংসদ সদস্য মো. মকবুল হোসেন গাংনীর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়বেন। পরে নেতা-কর্মীদের সাথে কুশল বিনিময় করবেন। মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা আসনের সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য সেলিনা আক্তার বানু ঈদ করবেন মেহেরপুরে। পরে পরিবারের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করে গ্রামের বাড়ি গাংনীর মোহাম্মদপুরে গিয়ে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। মেহেরপুর জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ ঈদে মেহেরপুরেই থাকছেন। এদিন তিনি পরিবারের সাথে সময় দেবেন। পাশাপাশি জনপ্রতিনিধিসহ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে সাক্ষাৎ করবেন। মেহেরপুর পৌরসভার মেয়র ও জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান রিটন মেহেরপুরের পুরাতন ঈদগাহ ময়দানে ময়দানে নামাজ পড়বেন। নামাজ শেষে শহরের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান ঈদের নামাজ আদায় করবেন পুলিশ লাইনে। পরে তিনি পরিবারের সাথে সময় দেবেন এবং কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যদের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। মেহেরপুর জেলা পরিষদের প্রশাসক অ্যাড. মিয়াজান আলী ঈদের নামাজ আদায় করবেন নিজ গ্রাম খন্দকারপাড়া ঈদগাহ ময়দানে। পরে বাড়ি ফিরে নেতা-কর্মীদের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। মেহেরপুর-০১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য প্রফেসর আব্দুল মান্নান ঈদের নামাজ পড়বেন ঢাকা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে। পরে তিনি গণভবনে মাননীয় প্রধানমন্ত্র শেখ হাসিনার সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। মেহেরপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মাসুদ অরুন নামাজ আদায় করবেন পৌর ঈদগাহ ময়দানে। নামাজ শেষে দলীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মী ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও মেহেরপুর-০১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য  জয়নাল আবেদীন ঈদের নামাজ আদায় করবেন মেহেরপুরের পুরাতন ঈদগাহ ময়দানে। দলীয় কার্যালয়ে নেতা-কর্মীদের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ খালেক গাংনীর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়বেন। জেলা বিএনপির সভাপতি আমজাদ হোসেন ঈদের নামাজ আদায় করবেন গাংনী হিন্দা গ্রামের ঈদগাহ ময়দানে। পরে গাংনীতে এসে তিনি বিএনপি’র দলীয় কার্যালয়ে নেতা-কর্মীদের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। মেহেরপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র আলহাজ মো. মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতু ঈদের নামাজ আদায় করবেন কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে। গাংনী পৌর মেয়র আশরাফুল ইসলাম ঈদের নামাজ আদায় করবেন গাংনীর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে। নামাজ শেষে তার কার্যালয়ে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও পিরোজপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস ঈদের নামাজ আদায় করবেন তার নিজ গ্রাম পিরোজপুর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে। নামাজ শেষে তার কার্যালয়ে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। মেহেরপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. মারুফ আহম্মদ বিজন ঈদের নামাজ পড়বেন মেহেরপুর পৌর ঈদগাহ ময়দানে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহসম্পাদক ও রুপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাস কোঃ লিঃ (পেট্রোবাংলা) এর পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক এম.এ.এস ইমন ঈদের নামাজ পড়বেন মেহেরপুরের পুরাতন ঈদগাহ ময়দানে। পরে তিনি তার গ্রামের বাড়ি রায়পুর গ্রামে গিয়ে আত্মীয়স্বজন ও এলাকার নেতা-কর্মীদের সাথে কূশল বিনিময় করবেন। জেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক শহীদুল ইসলাম তার গ্রামের বাড়ি টুঙ্গী গ্রামে ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়বেন। আত্মীয়স্বজন ও এলাকার নেতা-কর্মীদের সাথে কুশল বিনিময় করবেন। সেখান থেকে ফিরে শহরের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।