চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরসহ দেশের ৩২১টি প্রকল্পের উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

200

বাংলাদেশকে আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে পৌঁছে দিয়েছি
ডেস্ক রিপোর্ট: গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মোট ৩২১টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপনসহ চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর ও দামুড়হুদা এবং মেহেরপুরের গাংনীতে শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সারাদেশে একযোগে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনের পর এক বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।
নিজস্ব প্রতিবেদক জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা ও জীবননগর উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।


উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশকে আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে পৌঁছে দিয়েছি। নির্বাচন খুব সামনে। হয়তো যে কোনো সময় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হবে। আবার আমরা জনগণের কাছে আসব, নৌকা মার্কায় ভোট আমরা চাইব। তিনি বলেন, আমরা চাইব, যে উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে যাচ্ছি সেগুলো যেন আগামী দিনে আমরা এসে সম্পন্ন করতে পারি এবং মানুষের কর্মসংস্থান, জীবন-মানের উন্নয়ন করতে পারি সে সহযোগিতাও আমি দেশবাসীর কাছে চাই। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে পৌঁছে দিয়েছি। আজকে গ্রামের মানুষেরও ভাগ্য পরিবর্তন হয়েছে, উন্নত হয়েছে, আরো উন্নয়ন হোক সেটাই আমরা চাই। আর সে লক্ষ্য নিয়েই আমাদের কাজ।
চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগর টগর, জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাস, পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. কামরুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক খোন্দকার ফরহাদ আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন ও সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, ওজোপাডিকো লিমিটেডের চুয়াডাঙ্গা নির্বাহি প্রকৌশলী সবুক্তগীন প্রমূখ। কনফারেন্স শেষে জনকল্যানে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড প্রচার ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগ সমূহের সফলতা উদযাপন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে শহরে এক আনন্দ র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে শুরু করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাস, পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. কলিমুল্লাহসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ।
দামুড়হুদা প্রতিনিধি জানিয়েছে, ‘শেখ হাসিনার উদ্যোগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে দামুড়হুদা উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়ন উপজেলা হিসেবে ঘোষনা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার সময় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কন্ফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন। এ উপলক্ষে মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতির পক্ষ থেকে দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি উপভোগ করার জন্য ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান মাও. আজিজুর রহমান, দামুড়হুদা উপজেলা জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাজি আব্দুল গফুর, দামুড়হুদা উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) সৈয়দা নাফিস সুলতানা, দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস, মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতির ডিজিএম হাবিবুর রহমান, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ছালমা জাহান পারুল, উপজেলা কৃষি অফিসার মোহাম্মদ শামিউর রহমান, উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মশিউর রহমান, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সেলিম রেজা, উপজেলা প্রকৌশলী মাহাববু-উল আলম, সমবায় অফিসার অশোক কুমার বিশ্বাস, জেলা পরিষদ সদস্য শফিউল কবির ইউসুফ, ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, আজিজুল হক, শাহ মো. এনামুল করিম ইনু, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এম. নুরুন্নবী, মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতির এজিএম রবিউল আলম, দামুড়হুদা সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজি সহিদুল ইসলাম, দামুড়হুদা বাজার বনিক সমিতির সভাপতি হেদায়েতুল ইসলাম, দামুড়হুদা অফিসের ইনচার্জ গোলাম আজম প্রমূখ। সন্ধ্যায় দামুড়হুদা উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির ওস্তাদ আসমত আলী বিশ্বাস ও আক্কাচ আলীর তত্তাবধানে চুয়াডাঙ্গা ও দামুড়হুদার বিভিন্ন বেতার শিল্পিসহ দর্শনা ধীরু বাউলের সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শেষ হয়। রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগের পক্ষ থেকে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে আতশ বাজি ফোটানো হয়। এ সময় আতশ বাজির বিকট শব্দে প্রকম্পিত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা।
জীবননগর অফিস জানিয়েছে, জীবননগর উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। উপজেলা পরিষদের হলরুমে অনুষ্ঠিত ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন জীবননগর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সেলিম রেজা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হাজী হাফিজুর রহমার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকী, জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ গনি মিয়া, এজি এম মনিরুল ইসলাম, বাঁকা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের প্রধান, রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ শাহ, কেডিকে ইউপি চেয়ারম্যান খায়রুল বাসার শিপলু প্রমূখ। এ সময় উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
গাংনী অফিস জানিয়েছে, মেহেরপুরের গাংনী উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন ও ফায়ার সার্ভিসের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন হতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শুভ উদ্বোধন করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সম্মেলন কক্ষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এমপি মকবুল হোসেন, এমপি সেলিনা আকতার বানু, জেলা প্রশাসক আতাউল গণি, মেহেরপুর পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, গাংনী পৌর মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) নবীরুদ্দীন, পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পালসহ সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী সাংবাদিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ। পরে এক বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর থেকে বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে।