চুয়াডাঙ্গায় ৩ স্বাস্থ্যকর্মীসহ নতুন আক্রান্ত ৩০

154

মেহেরপুরে ১০, ঝিনাইদহের ৭ ও কুষ্টিয়ার ৫৮ জনের করোনা পজেটিভ
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গার ৩ উপজেলার ৩ জন স্বাস্থ্যকর্মীসহ নতুন করে ৩০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় জেলা সিভিল সার্জন অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করে। গতকাল সিভিল সার্জন অফিসে ৫ আগস্টে প্রেরিত ৮০টি নমুনার ফলাফল এসে পৌঁছায়। এর মধ্যে ৩০ জনের রিপোর্ট পজিটিভ ও বাকি ৫০ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭৮৯ জনে। গতকাল আক্রান্ত ৩০ জনের মধ্যে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার সাদেক আলী মল্লিক পাড়ার ১ জন, শান্তিপাড়ার ২ জন, শংকরচন্দ্রের ১ জন, ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ড পাড়ার ১ জন, দৌলাতদিয়াড় পাড়ার ২ জন, ফার্মপাড়ার ১ জন, বড় বাজার পাড়ার ১ জন, আরামপাড়ার ২ জন, সাতগাড়ির ৩ জন, গাইদঘাট এলাকার ৩ জন, মহিলা কলেজপাড়ার ১ জন, রাজাপুরের ১ জন, কুতুবপুরের ১ জনসহ মোট ২০ জন। আলমডাঙ্গা উপজেলার কোর্টপাড়ায় ১ জন, পুরাতন পাঁচলিয়ার ১ জন, হাটবোয়ালিয়ার ১ জন ও আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ১ জনসহ ৪ জন। দামুড়হুদা উপজেলার কানাইডাঙ্গা গ্রামের ২ জন ও দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ১ জনসহ ৩ জন এবং জীবননগর উপজেলার আশতলা পাড়ার ১ জন, গোকুলনগর গ্রামের ১ জন ও জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ১ জনসহ ৩ জন। গতকাল করোনা শনাক্ত ৩০ জনের বয়স ১৭ বছর থেকে ৭০ বছর পর্যন্ত। পুরুষ ১৭ জন ও নারী ১৩ জন।
এদিকে, কুষ্টিয়ার মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাবে গতকাল ফলোআপসহ চুয়াডাঙ্গার ১০৫টি, মেহেরপুরের ২৯টি, ঝিনাইদহের ২২টি ও কুষ্টিয়ার ১৮৯ টিনমুনাসহ ৩৪৫টি নমুনা পরীক্ষা করে চুয়াডাঙ্গার নতুন ৩০ জন, মেহেরপুর ১০ জন, ঝিনাইদহের ৭ জন ও কুষ্টিয়ার ৫৮ জনসহ মোট ১০৫ জন করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড় চুয়াডাঙ্গার ৪ জনের ফলোআপ রিপোর্ট পজিটিভ। বাকিগুলোর ফলাফল নেগেটিভ।
গতকাল জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ৭৭টি নমুনা সংগ্রহ করেছে। সদর উপজেলা থেকে ৪০টি, আলমডাঙ্গা উপজেলা থেকে ১৭টি, দামুড়হুদা উপজেলা থেকে ৪টি ও জীবননগর উপজেলা থেকে ১৬টি নমুনাসহ সংগৃহীত ৭৭টি নমুনা পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
জানা যায়, গত বুধবার চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা আক্রান্ত সন্দেহে ৮০টি নমুনা সংগ্রহ করে। সদর উপজেলা থেকে ৪৪টি, আলমডাঙ্গা উপজেলা থেকে ১৯টি ও দামুড়হুদা উপজেলা থেকে ৯টি ও জীবননগর উপজেলা থেকে ৮টি নমুনাসহ সংগৃহীত ৮০টি নমুনা পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। গতকাল বৃহস্পতিবার উক্ত ৮০টি নমুনার ফলাফলই সিভিল সার্জন অফিসে এসে পৌঁছায়।
চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিসের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী জেলা থেকে এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ ৩ হাজার ৭৫৩টি, প্রাপ্ত ফলাফল ৩ হাজার ৫৩৯টি, পজিটিভ ৭৮৯ জন, নেগেটিভ ২৭৫২ জন। গতকাল আইসোলেশন থেকে নতুন সুস্থ হয়েছেন ১২ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ৩৮৫ জন ও মৃত্যু ১৩ জন। গতকাল রাতের শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জেলায় প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে ৩৪ জন ও হোম আইসোলেশনে ছিলেন ৩৫৫ জন।