চুয়াডাঙ্গায় শিক্ষক আব্দুল বারীর নমুনায় করোনা শনাক্ত

191

গত ২৪ ঘন্টায় দেশে আরও ২৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৬৮১
সমীকরণ প্রতিবেদন:
দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে সংক্রমিত আরও ১ হাজার ৬৮১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ সময় করোনায় মারা গেছেন ২৫ জন। দেশে এখন পর্যন্ত মোট ৪ লাখ ৪ হাজার ৭৬০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৫ হাজার ৮৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ২১ হাজার ২৮১ জন। গতকাল বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ২৪ জন পুরুষ, ১ জন নারী। দেশে এখন পর্যন্ত সংক্রমণ বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৪ হাজার ২৬৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার সংখ্যা বিবেচনায় রোগী শনাক্তের হার ১১ দশমিক ৭৮ শতাংশ। দেশে প্রথম করোনায় সংক্রমিত রোগী শনাক্তের ঘোষণা আসে চলতি বছরের ৮ মার্চ। প্রথম মৃত্যুর তথ্য জানানো হয় ১৮ মার্চ।
জনস্বাস্থ্যবিদেরা বলছেন, দেশে করোনা পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এর মধ্যে সরকার আশঙ্কা করছে, শীতে আবার সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে। টিকা আসার আগপর্যন্ত নতুন এই ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধের মূল উপায় হলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। মাস্ক পরা, কিছু সময় পরপর সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়া, জনসমাগম এড়িয়ে চলা ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা। কিন্তু এই স্বাস্থ্যবিধিগুলো মেনে চলার ক্ষেত্রে ঢিলেঢালা ভাব দেখা যাচ্ছে। এতে সংক্রমণ আবার বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা আছে।
চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষক আব্দুল বারীর নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। জানা যায় শিক্ষক বারী বুধবার সকাল ৬টার দিকে হঠাৎ অসুস্থ হলে তাঁকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল পৌনে ৯টার দিকে ইন্তেকাল করেন তিনি। পরে করোনা পরীক্ষার জন্য তাঁর শরীর থেকে সংগৃহিত নমুনাসহ মোট ২৪টি নমুনা পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। গতকাল উক্ত নমুনার ফলাফল সিভিল সার্জন অফিসে এসে পৌঁছায়। এর মধ্যে শিক্ষক আব্দুল বারীর নমুনায় ও দামুড়হুদার অপর একজন ব্যক্তির নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়। বাকী ২২ নমুনার ফলাফল নেগেটিভ আসে। এ নিয়ে চুয়াডাঙ্গায় করোনা হয়ে মত্যুর সংখ্যা দাড়ালো ৩৬ জনে এবং মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ১ হাজার ৫১০ জনে। গতকাল জেলায় নতুন কেউ সুস্থ হয়নি। জেলায় এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৪০১ জন।
গতকাল করোনা আক্রান্ত সন্দেহে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা থেকে আরও ২৫ টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষর জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে প্রেরণ করেছে। চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিসের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী জেলা থেকে এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ ৬ হাজার ২৫২টি, প্রাপ্ত ফলাফল ৬ হাজার ৫৮টি, পজিটিভ ১ হাজার ৫০১০টি, নেগেটিভ ৪ হাজার ৫৪৪টি। শেষখবর পাওয়া পর্যন্ত জেলায় গতকাল হোম আইসোলেশনে ছিল ৫৩জন ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে ছিল ১৪জন।