চুয়াডাঙ্গায় মাদক ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পন অনুষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন আত্মসমর্পন করলে তার পূর্নঃবাসনের ব্যবস্থা করবে পুলিশ

246

নিজস্ব প্রতিবেদক: “সেচ্ছায় আত্মসমর্পন করে মাদক ব্যবসা ছাড়ুন-মাদক মুক্ত সমাজ গঠনে সহায়তা করুন” আপনাদের পূর্নঃবাসন, কর্ম ও মামলার দ্বায়িত্ব নেবে চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ। সাথে সাথে ধরিয়ে দিন মাদক সিন্ডিকেটের গড ফাদারদের- মাদক নিরসনে জিরো টলারেন্সে থেকে সর্বাত্বত সহযোগিতা করবে পুলিশ। মাদক ব্যবসায়ী, মাদক সেবীসহ আপনাদের কাছ থেকে অর্থ আদায়কারী অসাধু পুলিশ, সাংবাদিক ও দালালদের তথ্যও দিন। এ পেশায় সহযোগিতাকারী কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বললেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ পার্ক হলরুমে আয়োজিত মাদক ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা পুলিশ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে জেলার চারটি উপজেলার দু শতাধিক মাদক ব্যবসায়ী আনুষ্ঠানিক ভাবে আত্মসমর্পন করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার আশ্বাসদেন। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত থেকে দিক নির্দেশনা মূলক বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. তরিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা সার্কেল) মো. কলিমুল্লাহ, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মো. কামরুজ্জামানসহ প্রশাসনের বিভিন্ন মহলের কর্মকর্তা, জন প্রতিনিধি, রাজনীতিবীদ, সাংবাদিক ও মাদকব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে আরো জানান, মাদকমুক্ত সমাজ বিনির্মানে পুলিশ জিরো টলারেন্সে থেকে নানামূখী পদক্ষেপ নিয়েছে। তারই অংশ হিসেবে সম্প্রতি পুলিশের দেওয়া আল্টিমেটামে সাড়া দিয়ে ১ম দফায় শতাধিক মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পন করেছে। আজ ২য় দফায় আনুমানিক ২২৫ জনেরও বেশি মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পন করেছে। তিনি আরো জানান, আগামী ২ মার্চ চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের কাছে আত্মসমর্পনের শেষ সুযোগ থাকছে মাদক ব্যবসায়ীদের জন্য।  এর মধ্যে যারা আত্মসমর্পন করবে তাদের সর্বাত্বক সহযোগিতা করা হবে। কর্মক্ষম সকলকে কাজের ব্যবস্থা করা হবে, পঙ্গুদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হবে। সাথে সাথে মাদক ব্যবসায়ীদের নামে চলমান মামলার দ্বায়িত্ব নেবে জেলা পুলিশ। তাদের জন্য বিশেষ ভাবে আইনজীবি নিয়োগ করা হবে বলেও তিনি জানান। এদিকে, সকল মাদক ব্যবসায়ীদেরকে নিয়ে আগামী ৬ মার্চ চুয়াডাঙ্গায় আনুষ্ঠানিক ভাবে আত্মসমর্পন অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে যাচ্ছে জেলা পুলিশ। উক্ত অনুষ্ঠানে খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি এস, এম মনিরুজ্জামান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন বলেও তিনি জানান। এর মধ্যে যারা আত্মসমর্পন করবে না তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।