চুয়াডাঙ্গায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নির্মাণাধীন বাড়ির ছাদ পড়ে যুবক জখম

129

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গায় দুইতলা বাড়ির নির্মাণাধীন ছাদে রড বাধার কাজ করার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নিচের ইটের ওপর পড়ে ওসমান আলী (১৯) নামের এক যুবক গুরুতর জখম হয়েছেন। গতকাল সোমবার দুপুর ১২টার দিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার দক্ষিণ হাসপাতালপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। পরে সহকর্মীরা নিচে এসে তাঁকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়। জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ওসমানকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি রাখেন। আহত ওসমান আলী চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হাটকালুগঞ্জ গ্রামের উত্তরপাড়ার রবিউল ইসলামের ছেলে।
জানা যায়, চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার দক্ষিণ হাসপাতালপাড়ায় একটি নির্মাণাধীন দুইতলা বাড়ির ছাদে রড বাধার কাজ করছিলেন ওসমান আলী। কাজের মধ্যে একটি রড সরাতে গেলে উচ্চক্ষমতা-সম্পন্ন বৈদ্যুতিক তাঁরের সঙ্গে স্পর্শ হলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুইতলা থেকে নিচে পড়ে যান ওসমান। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট রড হাতে থাকায় তাঁর বাম হাতের তালু ও আঙল গুরুতরভাবে দগ্ধ হয় এবং উপর থেকে নিচে ইটের ওপর পড়ায় শরীরের বিভিন্নস্থানে গুরুতর জখম হন। এ সময় সহকর্মীরা তাঁকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়। জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. জান্নাতুল ফেরদৌস তাঁকে চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের ওয়ার্ডে ভর্তি রাখেন।
এ বিষয়ে ডা. জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, গুরুতর জখম অবস্থায় কয়েকজন ওসমানকে জরুরি বিভাগে নেয়। জানতে পারি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই তলার ছাদ থেকে নিচে পড়ে গেছেন তিনি। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ায় তাঁর একটি হাতের পাতা ও আঙুল দগ্ধ হয়েছে ও ছাদের ওপর থেকে নিচে পড়ায় মাথায় আঘাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কেঁটে-ছিলে গেছে। তাঁকে যথাযথ চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের পুরুষ সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি রাখা হয়েছে।