চুয়াডাঙ্গায় ফেনসিডিল, গাঁজসহ গ্রেপ্তার ৪

16

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গার পৃথক স্থানে মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ফেনসিডিল, গাঁজাসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার পৃথক অভিযানে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।
জানা যায়, চুয়াডাঙ্গার জাফরপুর নতুন স্টেডিয়াম এলাকা থেকে ফেনসিডিলসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে শহর ফাঁড়ির পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। পরে গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা করে তাঁদের সদর থানা হেফাজতে সোপর্দ করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের আজ আদালতে প্রেরণ করা হতে পারে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হানুরবাড়াদি কাজীপাড়ার মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে মজিদ (৫০) ও তালতলা স্কুলপাড়ার গাজীর উদ্দীনের ছেলে কালু (৩৫)।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের মাধ্যমে শহর ফাঁড়ির পুলিশ জানতে পারে, পাখিভ্যানে করে ফেনসিডিল নিয়ে দুজন চুয়াডঙ্গা শহরের দিকে আসছেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে শহর ফাঁড়ির পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) ওহিদুল ইসলাম ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানকালে মজিদ ও কালু নামের দুজনকে গ্রেপ্তার করেন। এ সময় তাঁদের শরীর তল্লাশি করে একটি প্লাস্টিকের ব্যাগের মধ্যে রাখা ১২ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। পরে গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে আসামিদের সদর থানা হেফাজতে সোপর্দ করা হয়। গ্রেপ্তার আসামিদের আজ আদালতে প্রেরণ করা হতে পারে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
অপর দিকে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুকিয়াচাঁদপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে এক কেজিসহ কলিমুদ্দিন (৪০) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে সদর থানার পুলিশ। গ্রেপ্তার কলিমুদ্দিন উপজেলার হানুড়বাড়াদি এলাকার মৃত কলিমুদ্দিনের ছেলে। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর থানার পুলিশ জানতে পারে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুকিয়াচাঁদপুর এলাকা দিয়ে চারজন ব্যক্তি একটি ব্যাগে করে গাঁজা নিয়ে যাচ্ছেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) একরামুল হোসেন ও মুহিতুর রহমান ফোর্স নিয়ে কুকিয়াচাঁদপুরে অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানকালে পুলিশের উপস্তিতি টের পেয়ে তিনজন পালিয়ে গেলেও আব্দুর রহমান নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির শরীর তল্লাশি করে এক কেজি গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ। পরে পুলিশ বাদী হয়ে ওই তিনজনকে পলাতক দেখিয়ে ও গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির নামে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে। গ্রেপ্তার ওই আসামিকে সদর থানা হেফাজতে সোপর্দ করলে গতকালই তাঁকে আদালতে প্রেরণ করে সদর থানার পুলিশ।
অন্য দিকে, কোকের বোতলে ফেনসিডিলসহ বেল্টু হোসেন (২৬) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছ বেগমপুর ফাঁড়ির পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আকন্দবাড়ীয়া আবাসনের সামনে থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা করে থানা হেফাজতে সোপর্দ করা হয়।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বেগমপুর ফাঁড়ির পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) রাজীব আলী ও সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আশরাফ হোসেন ফোর্স নিয়ে আকন্দবাড়ীয়া আবাসনের সামনে অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানকালে একই এলাকার তামালতলা পাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে বেল্টু হোসেনকে গ্রেপ্তার করেন। এ সময় গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির শরীর তল্লাশি করে দুটি প্লাস্টিকের কোকের বোতলে রাখা এক লিটারের বেশি ফেনসিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলাসহ চুয়াডাঙ্গা সদর থানা হেফাজতে সোপর্দ করা হয়। আজ তাঁকে আদালতে প্রেরণ করা হতে পারে বলে জানিয়েছে পুলিশ।