চুয়াডাঙ্গায় নতুন ৮ জন আক্রান্ত, সুস্থ ১৯

109

২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৯৩
সমীকরণ প্রতিবেদন:
সারা দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৫৯৩ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৪ হাজার ৮৫৯ জনে। মোট শনাক্ত ৩ লাখ ৪৪ হাজার ২৬৪ জনে দাঁড়িয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৪৪৩ জন এবং এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৫০ হাজার ৪১২ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে আরও জানানো হয়, ৯৪টি পরীক্ষাগারে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ৭৬৯টি নমুনা সংগ্রহ এবং ১৩ হাজার ৬৭৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১৭ লাখ ৮৩ হাজার ৭৭৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১১ দশমিক ৬৫ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭২ দশমিক ৭৪ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪১শতাংশ। এদিকে, চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে ৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এক দিনে সুস্থ হয়েছেন ১৯ জন।
চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে ৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩৮৫ জনে। নতুন আক্রান্ত ৮ জনের মধ্যে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ১ জন, আলমডাঙ্গা উপজেলার ৪, দামুড়হুদা উপজেলার ১ ও জীবননগর উপজেলার ২ জন রয়েছেন। ৮ জনের মধ্যে ৬ জন পুরুষ ও ২ জন নারী। বয়স ৩২ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে। গতকাল জেলায় নতুন ১৯ জনসহ এ পর্যন্ত ১১৪৪ জন সুস্থ হয়েছেন।
জানা যায়, গত বুধবার করোনা আক্রান্ত সন্দেহে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ২৮টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে পাঠায়। গতকাল উক্ত নমুনার মধ্যে ২৭টি নমুনার ফলাফল সিভিল সার্জন অফিসে এসে পৌঁছায়। অপর একটি নমুনা রিজেক্ট করে কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাব। ২৭টি নমুনার মধ্যে ৮টি নমুনার রিপোর্ট পজিটিভ ও বাকি ১৯টি নমুনার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। গতকাল করোনা আক্রান্ত সন্দেহে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ নতুন ৩৩টি নমুনা সংগ্রহ করেছে। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা থেকে ২৬টি, আলমডাঙ্গা উপজেলা থেকে ৪টি, দামুড়হুদা উপজেলা থেকে ৩টি নমুনাসহ সংগৃহীত ৩৩টি নমুনা পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. শামীম কবির জানান, চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে ৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল হোম আইসোলেশন থেকে সদর উপজেলার ৭ জন, আলমডাঙ্গা উপজেলার ১২ জনসহ আরও ১৯ জন সুস্থ হয়েছেন।
চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিসের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী জেলা থেকে এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ ৫ হাজার ৪৭৮টি, প্রাপ্ত ফলাফল ৫ হাজার ৩৩২টি, পজিটিভ ১ হাজার ৩৮৫টি, নেগেটিভ ৩ হাজার ৯৪৭টি। গতকাল নতুন ১৯ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ১৪৪ জন ও মৃত্যু ৩২ জন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জেলায় গতকাল হোম আইসোলেশনে ছিলেন ১৭৬ জন ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে ছিলেন ২১ জন। এ পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গার বাইরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। সব মিলিয়ে জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৩৭ জন।