চুয়াডাঙ্গায় জেলা যুবলীগের কর্মিসভা ও প্রতিবাদ সমাবেশে নঈম জোয়ার্দ্দার

290

সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে যুবলীগ রাজপথে থাকবে
নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গায় জেলা যুবলীগের কর্মিসভা ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকাল ৪ টায় শহীদ হাসান চত্বরে অনুষ্ঠিত কর্মিসভা ও প্রতিবাদ সমাবেশে জেলা, উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন ইউনিটের শ’শ নেতাকর্মি অংশগ্রহন করেন। জেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক সামসুদ্দোহা মল্লিক হাসু’র সার্বিক পরিচালনায় কর্মিসভা ও প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার। এছাড়া প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক চিৎলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান জিললু।
সভাপতির বক্তব্যে জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার বলেন, নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে মাননীয় হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপির নেতৃত্বে জেলা যুবলীগ কাজ করে যাচ্ছে। যুবলীগ নেতাকর্মিদের ওপর হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার আরো বলেন, হামলাকারিরদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দিতে হবে। সবশেষে তিনি বলেন, সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগ রাজপথে থাকবে। নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার উপস্থিত সকল পর্যায়ের নেতাকর্মিদের ষড়যন্ত্রকারিদের কাছ থেকে দূরে থেকে দেশ ও মানুষের কল্যানে রাজনীতি করার আহ্বান জানান।
সমাবেশে অন্যন্য বক্তারা বলেন- রাজপথে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগকে সুসংগঠিত করতে নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন এবং এখনো পর্যন্ত যুবলীগকে সু-শৃংখল যুবসংগঠনে পরিণত করতে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। মাননীয় হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপির নেতৃত্বে জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার জেলার হাজার হাজার নেতাকর্মিদেরকে যুবলীগের ছায়াতলে এনে ঐক্যবদ্ধ করেছেন।
কর্মিসভা ও প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবলীগের সদস্য আবু বকর সিদ্দিক আরিফ, সাজেদুল ইসলাম লাবলু, আজাদ আলী, হাফিজুর রহমান হাপু সাজ্জাদুল ইসলাম স্বপন, তপন কুমার বিশ্বাস ও মতিয়ার রহমান ফারুক।
এছাড়া যুবলীগ নেতা মামুনুর রশিদ আঙ্গুর, পিরু, টুটুল, সৈকত, সুইটসহ চুয়াডাঙ্গা সদর যুবলীগ নেতা সাবান, শুকুর আলী ও জাহিদ। আলমডাঙ্গার যুবলীগ নেতা পিন্টু চেয়ারম্যান, শাহিন, গাফফার, সোনাহার, ডিটু। জীবননগর যুবলীগ নেতা শামীম. চঞ্চল ও নান্নু। দামুড়হুদা যুবলীগ নেতা এ্যাড. আবু তালেব, শাহিন, হযরত, মহাসিন ও মিঠু উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার, যুগ্ম আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান জিল্লু ও সামসুদ্দোহা মল্লিক হাসু স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে গত ২২/০৭/২০১৮ইং তারিখে জেলা যুবলীগের সদস্য সাজ্জাদুল ইসলাম স্বপনসহ তার সাথে থাকা পাটিকাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান সরফরাজকে লাঞ্চিত করে শান্ত চুয়াডাঙ্গাকে অশান্ত করার পায়তারা করছে নবগঠিত একটি বিতর্কিত কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়কসহ ওই কমিটির ১০/১১ সদস্যরা। এবং সমালোচিত ওই কমিটির নেতাকর্মিরা জেলা যুবলীগের সদস্য সাজ্জাদুল ইসলাম স্বপনকে রক্তাক্ত জখম করে এবং তার কাছে থাকা ৬৪ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেওয়াসহ স্বপনের সাথে থাকা কুষ্টিয়া পাটিকাবাড়ীর ইউপি চেয়ারম্যান সরফরাজকে মারধর করাসহ তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ভাংচুর করেছে বলে জানায়। এবং গত ২৪ জুলাই জেলা যুবলীগ এক বিশেষ জরুরি সভা করে জেলা যুবলীগের সদস্যকে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে ৩০ জুলাই কর্মিসভা ও প্রতিবাদ সমাবেশের ঘোষনা দেয়। সেই ঘোষনা অনুযায়ী গতকাল কর্মিসভা ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।