চুয়াডাঙ্গার সুজনের বাংলা চ্যানেল জয়

106

বঙ্গোপসাগরের উত্তাল ঢেউয়ের সঙ্গে লড়াই, ১৬ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে
সমীকরণ প্রতিবেদক:
পানির সাথে কতক্ষণ লড়াই করতে পারবেন আপনি? হয়ত ৫ মিনিট। পুকুরে যারা সাঁতার করেন, তাঁরা সর্বোচ্চ ১০ থেকে ১৫ মিনিট সাঁতার কাটেন। অলিম্পিক গেমসে তো আরও কম সময় পুলে লড়াই করতে হয়। কিন্তু ইংলিশ চ্যানেল কিংবা বাংলা চ্যানেলে প্রতিযোগীরা লড়াই করেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা। টানা ৩ ঘন্টা ৫৯ মিনিট বঙ্গোপসাগরের উত্তাল ঢেউয়ের সঙ্গে লড়াই করে ১৬.১ কিলোমিটার বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিয়েছেন চুয়াডাঙ্গার সন্তান নাজমুল ইসলাম সুজন। চুয়াডাঙ্গা সদরের আলুকদিয়া ইউনিয়নের হাতিকাটা গ্রামের নজরুল ইসলাম ও হাসিনা খাতুনের ছোট ছেলে নাজমুল ইসলাম সুজন ১৫তম ফরচুন-বাংলা চ্যানেল সাঁতার প্রতিযোগিতা-২০২০ এ অংশগ্রহণ করে এই সাফল্য অর্জন করেন। গতকাল সোমবার (৩০ নভেম্বর) কক্সবাজারের শাহপরীর দ্বীপ থেকে এই সাঁতার প্রতিযোগিতা শুরু হয় এবং শেষ হয় সেন্টমার্টিন দ্বীপে।
শৈশব ও স্কুল জীবনে মাথাভাঙ্গা নদীতে দাপিয়ে বেড়ানো নাজমুল ইসলাম সুজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সুইমিং টিমের সহ-অধিনায়ক। শুধু তাই নয়, ঢাকা ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন অব চুয়াডাঙ্গার সভাপতির দায়িত্বে আছেন। চুয়াডাঙ্গা জেলার সন্তান হিসেবে প্রথম বাংলা চ্যানেল জয় করে আনন্দিত সুজন এই জয় ভি জে সরকারি উচ্চবিদ্যালয় ও তাঁর কলেজ শিক্ষকদের উৎসর্গ করেছেন। পাশাপাশি তিনি এই জয়ে জেলা প্রশাসক ও চুয়াডাঙ্গা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি নজরুল ইসসলাম সরকার এবং জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সাবেক মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এক দিন যেন ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিতে পারেন, সে জন্য তিনি জেলাবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।