চুয়াডাঙ্গার বিশিষ্টজনেরা ঈদ করছেন কে কোথায়

153

ডেস্ক রিপোর্ট:
শান্তি আর ত্যাগের বার্তা নিয়ে বছর ঘুরে এল মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ। আপনজনের সঙ্গে ঈদ উদ্যাপন করতে নাড়ির টানে বাড়ি ফিরছেন সবাই। সেই সঙ্গে রয়েছে কোরবানি দেওয়ার আনুষ্ঠানিকতা। প্রতিবছরের ন্যায় এবারও চুয়াডাঙ্গা জেলার বিশিষ্টজনেরা অধিকাংশই ঈদ উদ্যাপন করতে নিজ এলাকায় ফিরেছেন। চুয়াডাঙ্গা জেলার জনপ্রতিনিধি, শীর্ষ কর্মকর্তা, রাজনীতিবিদসহ বিশিষ্টজনেরা কে কোথায় ঈদ উদ্যাপন করবেন, এ নিয়েই আমাদের বিশেষ প্রতিবেদন।
জনপ্রতিনিধিরা ঈদ করবেন কে কোথায়:
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন পৌর ঈদগাহ ময়দানে ১ম জামাতে পরিবারের সদস্য ও নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ঈদের নামাজে অংশ নেবেন। নামাজ শেষে মুসল্লিদের সঙ্গে শুভেচ্ছাবিনিময় পরবর্তী চুয়াডাঙ্গা কবরী রোডস্থ নিজ বাসভবনে ফিরে পশু কোরবানি করবেন। এরপর জেলার সব পর্যায়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারী, নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।
জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর এবার তাঁর বড় মেয়ের সঙ্গে সপরিবারে লন্ডনে ঈদ উদ্যাপন করবেন। চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপু পৌর ঈদগাহ ময়দানে নামাজ আদায় শেষে বাবার কবর জিয়ারত করবেন। এরপর সরকারি শিশু পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কুশল বিনিময় ও দুপুরের খাবার খাবেন। পরে হাসপাতালের সাধারণ রোগীদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। এরপর কেদারগঞ্জ পাড়াস্থ নিজ বাসভবনে ফিরে পশু কোরবানি করবেন। পরে পৌরবাসী, দলীয় নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষের সঙ্গে শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি আসাদুল হক বিশ্বাস আলুকদিয়ার মনিরামপুরে নিজ গ্রামের ঈদগাহে নামাজ আদায় করবেন এবং সেখানেই পশু কোরবানি করবেন। আলমডাঙ্গা পৌর মেয়র হাসান কাদির গনু এরশাদপুরস্থ নিজ গ্রামের ঈদগাহে নামাজ আদায় করবেন এবং পশু কোরবানি করবেন। দর্শনা পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান দর্শনা ইসলাম বাজারপাড়ায় তাঁর নিজ এলাকায় ঈদের নামাজ আদায় করবেন। এরপর নিজ বাড়িতে ফিরে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে পশু কোরবানি করবেন। পরিবারের সবাইকে সঙ্গে নিয়ে জীবননগর পৌর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে ঈদের নামাজ আদায় করবেন জীবননগর পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। নামাজ শেষে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের নেতা-কর্মী ও সাধারণ জনগণের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। এরপর নিজ বাসভবনে ফিরে পশু কোরবানি করবেন। আলমডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন ঈদ উদ্যাপন করবেন নিজ উপজেলাধীন জামজামি ইউনিয়নের পাঁচলিয়া গ্রামে। দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলী মুনসুর বাবু তাঁর নিজ গ্রাম রঘুনাথপুর-বাস্তপুর ঈদগাহ ময়দানে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করবেন। এরপর নিজ বাসভবনে ফিরে পশু কোরবানি করবেন। পরে দলীয় নেতা-কর্মী, শুভাকাক্সক্ষী, সাধারণ জনগণের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। জীবননগর উপজেলা চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান তাঁর নিজ গ্রাম খয়েরহুদা গ্রামের ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়বেন এবং সেখানেই পশু কোরবানি করবেন বলে জানা গেছে।
জেলার শীর্ষ কর্মকর্তাদের ঈদ উদ্যাপন কোথায় হচ্ছে:
চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাস তাঁর নিজ কর্মস্থল চুয়াডাঙ্গায় ঈদ করবেন। এ দিন সকালে তিনি সরকারি শিশু পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। পরে হাসপাতাল ও জেলখানা পরিদর্শনে যাবেন। এরপর বাসভবনে ফিরে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। রাতে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সময় কাটাবেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ মোহা. রবিউল ইসলাম এবারও মেহেরপুর জেলার গাংনীতে পৈতৃক বাড়িতে ঈদ উদ্যাপন করবেন। সকালে স্থানীয় ঈদগাহে নামাজ আদায় শেষে নিজ বাড়িতে পশু কোরবানি করবেন। পরে প্রতিবেশীসহ নিকটাত্মীয়দের সঙ্গে কুশল বিনিময় করবেন। পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান পিপিএম (বার) সকাল আটটায় চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইনস মাঠে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। এরপর সেখানে ও তাঁর সরকারি বাসভবনে পশু কোরবানি করবেন। দুপুরে পুলিশ লাইনসের বড় খানা শেষে জেলার বিভিন্ন থানা ও ক্যাম্পে থাকা পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করবেন তিনি। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) কানাই লাল সরকার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. কলিমুল্লাহ নিজ কর্মস্থল চুয়াডাঙ্গাতেই ঈদ উদ্যাপন করছেন। সকালে ঈদের নামাজ শেষে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন তাঁরা।
চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির পরিচালক লে. কর্নেল সাজ্জাদ সারোয়ার চুয়াডাঙ্গা জাফরপুরস্থ বিজিবির ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর ঈদগাহ ময়দানে সৈনিকদের সঙ্গে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় শেষে কুশল বিনিময় করবেন। পরে ৬-বিজিবির অধীনস্থ বিভিন্ন ক্যাম্পে কর্তব্যরত ক্যাম্প কমান্ডার ও সৈনিকদের সঙ্গে দেখা করবেন এবং শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। দুপুরে ব্যাটালিয়ন সদরের সব সৈনিকদের নিয়ে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেবেন। চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির সাবেক পরিচালক লে. কর্নেল ইমাম হাসান মৃধা পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি আরবে অবস্থান করছেন। তিনি সবার কাছে দোয়া কামনা করেছেন। সিভিল সার্জন ডা. এ এস এম মারুফ হাসান নিজ কর্মস্থল চুয়াডাঙ্গাতেই ঈদ উদ্যাপন করছেন। জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক রেজাউল ইসলাম তাঁর নিজ গ্রাম ঝিনাইদহের রতনহাট গ্রামে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সকালে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। এরপর গ্রামের বাড়িতে পশু কোরবানি করবেন।
কর্মস্থলে থেকে ঈদ উদ্যাপন করতে বিভাগীয় নির্দেশনা থাকায় ছুটিতে যাচ্ছেন না চুয়াডাঙ্গার চার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও চার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা (ওসি)। চুয়াডাঙ্গা সদর ইউএনও ওয়াশীমুল বারী ঈদুল আজহা উদ্যাপন করবেন নিজ কর্মস্থলের মানুষদের সঙ্গেই। আলমডাঙ্গা ইউএনও মো. লিটন আলী এবার প্রথমবার চুয়াডাঙ্গা জেলায় ঈদ উদ্যাপন করছেন। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঈদ উদ্যাপন করাটা মুখ্য বিষয় হলেও তিনি মনে করেন, তাঁর কর্মস্থলও তাঁর পরিবার। এ জন্য এবারের ঈদে উপজেলাবাসীর সঙ্গে সামিল হতে পারাটাও তাঁর জন্য অনেক আনন্দের। দামুড়হুদা ইউএনও দীপ্তিময়ী জামানও আর সবার মতো নিজ কর্মস্থলে ঈদ উদ্যাপন করছেন। এ ছাড়া জীবননগর ইউএনও সিরাজুল ইসলামও নিজ কর্মস্থলের মানুষদের সঙ্গে ঈদের নামাজ পড়বেন এবং পশু কোরবানি করবেন। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান, আলমডাঙ্গার ওসি আসাদুজ্জামান মুন্সী, দামুড়হুদার ওসি সুকুমার রায় ও জীবননগরের ওসি শেখ গণি মিয়া তাঁদের নিজ নিজ কর্মস্থলের সহকর্মী ও সর্বস্তরের মানুষদের সঙ্গে ঈদ উদ্যাপন করবেন।
রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা কে কোথায় ঈদ করছেন:
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আজাদুল ইসলাম আজাদ তাঁর নিজ গ্রাম ঈশ্বরচন্দ্রপুরের ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। এরপর নিজ বাসভবনে ফিরে পশু কোরবানি করবেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক ও দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মন্জু দর্শনা ইসলাম বাজারপাড়ায় তাঁর নিজ এলাকায় ঈদের নামাজ আদায় করবেন। জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খুস্তার জামিল ও যুগ্ম সম্পাদক সাবেক মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন চুয়াডাঙ্গার পৌর ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। এরপর পশু কোরবানির আনুষ্ঠানিকতা শেষে দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার পৌর ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজ আদায় করবেন এবং নামাজ আদায় শেষে নিজ বাসভবনে ফিরে পশু কোরবানির পর নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষের সঙ্গে শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন।
কেন্দ্রীয় বিএনপির উপকোষাধ্যক্ষ ও চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক শিল্পপতি আলহাজ্ব মাহমুদ হাসান খান বাবু এবার সপরিবারে ঢাকাতেই ঈদ করবেন। সকালে গুলশান আজাদ মসজিদে ঈদের জামাতে অংশ নেবেন তিনি। এরপর ঢাকাস্থ দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মুজিবুল হক মালিক মজু পৌর ঈদগাহে ও খন্দকার আব্দুল জব্বার সোনা ভি জে সরকারি উচ্চবিদ্যালয় (চাঁদমারী) মাঠে ঈদের নামাজ পড়বেন।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য মো. শরীফুজ্জামান শরীফ এবার পরিবার-পরিজন নিয়ে ঈদ করছেন চুয়াডাঙ্গাতে। সকাল আটটায় চুয়াডাঙ্গা ভি জে সরকারি উচ্চবিদ্যালয় (চাঁদমারী) মাঠে নামাজ পড়বেন তিনি। এরপর মুক্তিপাড়াস্থ তাঁর নিজ বাসভবনে ফিরে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে পশু কোরবানি করবেন। পরে আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব ও দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। জেলা বিএনপির অন্যতম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার হাজি মোখলেছুর রহমান তরফদার টিপু সপরিবারে ঢাকাতেই ঈদ করবেন বলে জানা গেছে। সকালে রাজধানীর গুলশান আজাদ মসজিদে ঈদের জামাতে অংশ নেবেন তিনি।
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী চুয়াডাঙ্গা জেলা আমির আনোয়ারুল হক মালিক মোমিনপুর ইউনিয়নের আমিরপুরে নিজ গ্রামের ঈদগাহে নামাজ শেষে বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত করবেন। পরে নিজ বাসভবনে ফিরে পশু কোরবানি করবেন। সেক্রেটারি মো. রুহুল আমিন নামাজ পড়বেন জীবননগর উপজেলার নিজ গ্রাম ধোপাখালী ঈদগাহ ময়দানে। নামাজ শেষে পশু কোরবানি করবেন তিনি। এরপর নেতা-কর্মী ও এলাকাবাসীর সঙ্গে কুশলবিনিময় করবেন। দুপুরের পর সাক্ষাৎ করবেন দলের নির্যাতিত, আহত, অসুস্থ নেতা-কর্মীসহ যারা জেলে রয়েছেন, তাঁদের বাড়ি গিয়ে তাঁদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে। ঈদের দিনটি তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের জন্যই উৎসর্গ করতে চান।
জেলার বিশিষ্টজনেরা কোথায় ঈদ করবেন:
চুয়াডাঙ্গা জেলার কৃতী সন্তান সাহিদ গ্রুপের চেয়ারম্যান, সিঙ্গাপুর-বাংলাদেশ সোসাইটির উপদেষ্টা আলহাজ্ব সাহিদুজ্জামান টরিক মা ও পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে সিঙ্গাপুরে ঈদুল আজহা উদ্যাপন করবেন। সিঙ্গাপুরের মালাবরমর মসজিদে আজ সকাল আটটায় অনুষ্ঠিতব্য ঈদের জামাতে নামাজ পড়বেন। পরে স্থানীয় সুলতান মসজিদে সিঙ্গাপুরস্থ বাঙালীদের সঙ্গে পশু কোরবানি করবেন। ওয়েভ ফাউন্ডেশনের নিবার্হী পরিচালক মহাসিন আলী তাঁর নিজ এলাকা দর্শনা কলেজপাড়ায় ঈদ উদ্যাপন করবেন। দর্শনা কেরু এ্যান্ড কোম্পানী লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহেদ আলী আনসারী দর্শনাতে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি সরদার আল আমিন নিজ গ্রাম দৌলাতদিয়াড় সরদারপাড়ায় ও সাধারণ সম্পাদক রাজিব হাসান কচি দৌলাতদিয়াড় দক্ষিণপাড়া ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়বেন। পরে দুপুর ১২টা থেকে সারা দিন চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবে সাংবাদিকসহ সুধীজনদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছাবিনিময় করবেন। দৈনিক সময়ের সমীকরণ-এর প্রধান সম্পাদক নাজমুল হক স্বপন সকাল আটটায় ভি জে সরকারি উচ্চবিদ্যালয় (চাঁদমারী) মাঠে কেন্দ্রীয় জামাতে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। তবে আবহাওয়ার কারণে নামাজে বিঘœ ঘটলে তিনি কোর্ট মোড় জামে মসজিদে নামাজ পড়বেন বলে জানা গেছে।
সব মিলিয়ে ঈদ হবে আনন্দ, উল্লাস আর সুখময়। সব অপূর্ণতা কাটিয়ে আত্মত্যাগের মহিমায় ঈদের দিনটি হোক পরিপূর্ণ। দৈনিক সময়ের সমীকরণ পরিবারের পক্ষ থেকে সবাইকে জানাই পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা। সুস্থ ও সুন্দর থাকুন।