চিকিৎসায় কুষ্ঠ রোগ ভালো হয়

27

চুয়াডাঙ্গায় কুষ্ঠ কার্যক্রম বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা
নিজস্ব প্রতিবেদক:
‘আমাদের স্বপ্ন কুষ্ঠমুক্ত বাংলাদেশ’ স্লোগানে চুয়াডাঙ্গায় কুষ্ঠ কার্যক্রম বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। চুয়াডাঙ্গা ইম্প্যাক্ট ফাউন্ডেশনের প্রশাসক ডা. শফিউল কবিরের সভাপতিত্বে সভায় অতিথি ছিলেন দৈনিক সময়ের সমীকরণ-এর প্রধান সম্পাদক নাজমুল হক স্বপন, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রাজীব হাসান কচি, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক বিপুল আশরাফ ও দৈনিক মাথাভাঙ্গা পত্রিকার বার্তা সম্পাদক আহাদ আলী মোল্লা।
মতবিনিময় সভায় ইম্প্যাক্ট ফাউন্ডেশনের পক্ষে থেকে জানানো হয়, কুষ্ঠ কোনো মরণব্যাধী রোগ নয়। নিয়মিত ৬ মাস থেকে ১ বছরের চিকিৎসায় এই রোগ ভাল হয়। চুয়াডাঙ্গা জেলায় বর্তমানে ২৪ জন কুষ্ঠ রোগী সনাক্ত হয়েছে।
প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়, এই জেলায় কুষ্ঠ রোগী নিয়ে তারা ১ বছর ৪ মাস কাজ করছেন। এর মধ্যে গত বছর ১৮জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আর এ বছর করোনা ভাইরাসের কারণে বেশি কাজ করা যায়নি। তবুও মাত্র কয়েকটি ক্যাম্পেইন করতে পেরেছেন তাঁরা। এরই মধ্যে ৬জন রোগী পাওয়া গেছে। অথচ, ২০১৮ সালে একজন, ২০১৭ সালে ৫ জন, ২০১৬ সালে ৬ জন, ২০১৫ সালে ২ জন, ২০১৪ সালে ৪ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আসলে সাধারণ মানুষ কুসংস্কারাচ্ছন্ন হয়ে ভয় পাই। অভিশাপ মনে করাসহ নানা রকম খারাপ চিন্তা ভাবনায় আচ্ছন্ন হয়ে লুকিয়ে অন্য জেলায় যেয়ে চিকিৎসার জন্য ঘোরে। কিন্তু প্রকৃপক্ষে, এটি এখন শুধুমাত্র একটি রোগ। সরকার সমস্ত চিকিৎসা ফ্রি করাচ্ছে। প্রত্যেক জেলায়-এর চিকিৎসা করা সম্ভব।
সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, লেপ্রসি মিশন ইন্টারন্যাশনালের জ্যৈষ্ঠ প্রকল্প পরিচালক খালেকুজ্জামান ও প্রকল্প পরিচালক রতন মালো, ইমপ্যাক্ট ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপক রফিকুল ইসলাম, প্রশিক্ষক টিপু সুলতান ও আতিকুজ্জামান। মতবিনিময় সভায় চুয়াডাঙ্গার প্রিন্ট এবং ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।