চিকিৎসককে লাঞ্চিতের ঘটনায় একজন আটক

66

জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওয়ার্ড বয়-সেচ্ছাসেবিকাকে মারধর ও
জীবননগর অফিস:
জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওয়ার্ড বয়, সেচ্ছাসেবিকাসহ চিকিৎসককে লাঞ্চিত করার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গতকাল মঙ্গলবার ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকায় তুষার নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে জীবননগর থানা-পুলিশ।
হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার রাত ১১টার দিকে জীবননগর উপজেলার হাসাদহ গ্রামের মৃত মাহাতাব আলীর ছেলে লিটন (৫০) হার্টের সমস্যাজনিত কারণে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। এসময় তার শ্বাসকষ্ট শুরু হলে চিকিৎসক তাকে অক্সিজেন দেন। কিছুক্ষণ পর অক্সিজেন ফুরিয়ে গেলে আনতে দেরি হওয়ায় রোগীর স্বজনেরা উত্তেজিত হয়ে এক টিকিৎসককে লাঞ্চিত ও ওয়ার্ড বয় এবং সেচ্ছাসেবিকাকে মারধর করে। এতে ওয়ার্ডবয় শিশির কুমার ঘোষ ও সেচ্ছাসেবিকা রানি আহত হন। ওয়ার্ডবয় শিশির কুমার ঘোষ গুরুত্বর আহত হওয়ায় তাঁকে উন্নত চিকিৎসার চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কমকতা ডা. জুলিয়েট পারউইন বলেন, রোগীর অক্সিজেন দেওয়াকে কেন্দ্র করে রোগীর স্বজনেরা হাসপাতালের চিকিৎসক, ওয়ার্ডবয় ও সেচ্ছাসেবিকাকে লাঞ্চিত ও আহত করে। এ ঘটনার পরই প্রশাসন, জেলা সিভিল সার্জন ও উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হয়। উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিদের্শে জীবননগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।
জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি জানার পরপরই হাসপাতালে টুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়। এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থানায় একটি লিখত অভিযোগ করেছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে একজনকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে