চাকরি হারাচ্ছেন রবি শাস্ত্রী!

78

খেলাধুলা প্রতিবেদন:
রবি শাস্ত্রীর কোনও দোষ নেই। তিনি ভুল-ত্রুটিও কিছু করেননি। তবুও তার চাকরি অনিশ্চিত। নতুন করে বেছে নেওয়া হতে পারে ভারতীয় দলের কোচ। অর্থাৎ, রবি শাস্ত্রীকে আরও একবার বিরাটদের কোচ হওয়ার জন্য পরীক্ষায় বসতে হতে পারে। কিছুদিন আগেই শাস্ত্রীকে ভারতীয় দলের কোচ হিসাবে নিযুক্ত করা হয়েছে। ২০২১ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত হবে ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টি। ততদিন পর্যন্ত শাস্ত্রীর কোচ হিসাবে দায়িত্বে থাকার কথা ছিল। এমনিতেই শাস্ত্রীর দ্বিতীয় দফায় দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রশ্ন তুলেছিলেন অনেকে। কিন্তু শেষমেশ যাবতীয় বিতর্কের অবসান ঘটিয়ে তিনি কোহলিদের কোচ হন। হঠাৎ করেই নতুন ঝামেলা এসে পড়েছে। সুপ্রিম কোর্টের নিযুক্ত ক্রিকেট অ্যাডভাইসরি কমিটির (সিএসি) সুপারিশ মতো হেড কোচ পদে পুনরায় দায়িত্ব পেয়েছিলেন রবি শাস্ত্রী। কিন্তু এখন বিসিসিআইয়ের নৈতিক অফিসার ডিকে জৈন জানাচ্ছেন, কপিল দেবের নেতৃত্বাধীন সিএসিতে রয়েছে স্বার্থের সংঘাত। যার জেরে শাস্ত্রীর নিয়োগ নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। সিএসির তিন সদস্য কপিল দেব, অংশুমান গায়কোয়ার ও শান্তা রাঙ্গাস্বামীর বিরুদ্ধে স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ উঠেছে। তাদের কাছে লিখিত নোটিশ পাঠানো হয়েছে। ১০ অক্টোবরের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে সিএসির সদস্যদের। সিএসির সদস্যদের মধ্যে স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ সত্যি হলে শাস্ত্রীর নিয়োগ বাতিল হতে পারে। সেক্ষেত্রে পুনরায় ভারতীয় দলের হেড কোচ নিয়োগ করা হবে। সেক্ষেত্রে নতুন সিএসি গঠন করা হবে। ঝামেলা পোহাতে হবে ভারতের মহিলা দলের কোচ উরকেরি রমনকেও। তিনিও সিএসির সুপারিশেই মহিলা দলের কোচ হয়েছিলেন।