চক্ষু স্বাস্থ্য সচেতনতায় সবাইকে কাজ করতে

15

চুয়াডাঙ্গায় ভিশন-২০২০ জেলা কমিটির সভায় সিএস ডা. মারুফ হাসান
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের আয়োজনে ও ইউকে-ভিত্তিক আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা সাইটসেভার্সের সহযোগিতায় জেলা ভিশন-২০২০ কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সম্মেলনকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা সিভিল সার্জন ডা. এ এস এম মারুফ হাসানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপু।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা বিএমএ-এর সেক্রেটারি ডা. আব্দুল লতিফ, জেলা তথ্য অফিসার আমিনুল ইসলাম, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নিখল রঞ্জন চক্রবর্তী ও চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. শামীম কবির। এ ছাড়াও সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রমুখ। সভায় উপস্থিত সবাইকে ভিশন-২০২০ কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করে মূল প্রবন্ধ করেন চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের চক্ষু কনসালট্যান্ট ডা. শফিউজ্জামান সুমন চক্ষু। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন সাইটসেভার্সের প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আল মামুন।
সভায় সভাপতির বক্তব্যে সিভির সার্জন ডা. এ এস এম মারুফ হাসান বলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলায় চোখের ছানি অপারেশনের হার বা সিএসআর বর্তমানে ২৪৪০ হলেও তা কমপক্ষে ৩২০০ হওয়া প্রয়োজন। তিনি জানান, সাইটসেভার্স নিরাময়যোগ্য অন্ধত্ব দূরীকরণ এবং প্রতিবন্ধীদের সমঅধিকার বাস্তবায়নের লক্ষ্য নিয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে কাজ করে যাচ্ছে। চুয়াডাঙ্গায়ও এ প্রকল্পের কার্যক্রমের মাধ্যমে গরীব ছানি রোগীদের বিনা মূল্যে ছানি অপারেশন করা হচ্ছে। ভিশন-২০২০ হলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি বৈশ্বিক উদ্যোগ, যার মূল বক্তব্য হলো ২০২০ সালের মধ্যে বিশ^ হতে নিরাময়যোগ্য অন্ধত্ব দূর করা। বাংলাদেশ সরকার এ কার্যক্রমের সঙ্গে একাত্বতা ঘোষণা করেছে। আলোচনা সভায় তিনি চক্ষু স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধির জন্যে সবাইকে কাজ করতে বলেন এবং যার যার অবস্থান থেকে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে সবাইকে ভূমিকা রাখতে বলেন।