গাছ কাটার আগে আমাদের সবার উচিৎ গাছ লাগানো

163

জীবননগরে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধনকালে লে. কর্নেল কামরুল আহসান
জীবননগর অফিস:
জীবননগরে মুজিববর্ষ উদ্যাপন উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বন্ধু রক্তদান কেন্দ্র, এফএসডিও এবং ইয়ুথ অ্যাসেম্বিলের উদ্যোগে উপজেলার মেদনীপুর, নতুনপাড়া গ্রামে এ বৃক্ষরোপণ করা হবে। বন্ধু রক্তদান কেন্দ্র ও ইয়ুথ অ্যাসেম্বিলের সভাপতি মিঠুন মাহমুদের সভাপতিত্বে খালিশপুর-৫৮ বিজিবির পরিচালক লে. কর্নেল কামরুল আহসান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।
বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি লে. কর্নেল কামরুল আহসান বলেন, ‘বাড়ির আঙিনায় বা বাগান থেকে যখন গাছ কাটা হয়, তখন আমাদের সবার উচিৎ গাছ কাটার আগে গাছ লাগানো। গাছ যেমন আমাদের অর্থ দেয়, ঠিক তেমনি জীবন বাঁচাতেও আমাদের গাছের প্রয়োজন। তাই আসুন আমরা সবাই একত্রিত হয়ে বাড়ির আঙিনা বা পরিত্যাক্ত স্থানগুলো ফেলে না রেখে ওই সব স্থানগুলোতে ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছ রোপণ করি। গাছের কোনো বিকল্প নেই।’
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকী, সীমান্ত ইউপি চেয়ারম্যান ময়েন উদ্দিন মঈন, আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন বিশ^াস ও সাংবাদিক মফিজুল ইসলাম। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আব্দুল আলিম, প্লাবন, নিশান, ঐশ^র্য, প্রান্তি, সাদিয়া স্বর্ণা, মেহেদী প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সার্বিক পরিচালনা করেন তুহিন হোসেন।
স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বন্ধু রক্তদান কেন্দ্র, এফএসডিও এবং ইয়ুথ অ্যাসেম্বিলের উদ্যোগে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে পর্যায়ক্রমে পরিত্যাক্ত রাস্তার দুই পাশে ৮ হাজার ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছ রোপণ করা হবে বলে জানা গেছে।