গাংনীতে করোনা উপসর্গে দুজনের মৃত্যু

80

গাংনী অফিস:
মেহেরপুরের গাংনীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে জোবাইদা খাতুন ও বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম নামের দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে গাংনী পশু হাসপাতাল পাড়ার আব্দুল গনির স্ত্রী জোবাইদা খাতুন (৭২) তাঁর নিজ বাড়িতে মৃত্যুকরণ করেন। অপর দিকে, ঢাকা কুর্মিটোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাওট গ্রামের মৃত মকছেদ আলীর ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুস সালামের মৃত্যু হয়। উভয়ের বয়স ৭০ থেকে ৭২ বছরের মধ্যে।
সূত্র জানায়, গাংনী বাজারের পশু হাসপাতাল পাড়ার বাচ্চুর স্ত্রী ও গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য সহকারী ফারহানা ইয়াসমিনের মেয়ে নুসরাত জাহান, জোবাইদা খাতুনের বড় ছেলে আক্তারুজ্জামান চঞ্চল করোনা আক্রান্ত হন। কয়েকদিন আগে বৃদ্ধা জোবাইদার নমুনা সংগ্রহের জন্য স্বাস্থ্যকর্মীরা তাঁর বাড়িতে গেলে নমুনা দিতে রাজি হননি জোবাইদার পরিবার। একপর্যায়ে ব্যর্থ হয়ে ফিরে আসের স্বাস্থ্যকর্মীরা। সর্দি, কাঁশি ও হালকা জ্বর নিয়ে তাঁর মৃত্যু হয়। একই পরিবারে তিনজন করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় দুশ্চিতার কারণে বৃদ্ধা জোবাইদার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন জোবাইদার পরিবার।
গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এম রিয়াজুল আলম জানান, স্বাস্থ্য সহকারী ফারহানাসহ তাঁর পরিবারের কয়েকজন করোনা পজিটিভ হয়েছে। তবে তাঁদের অবস্থা ভালো। বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালামের লাশ তাঁর নিজ গ্রাম বাওটে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হবে বলে জানান গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আর এম সেলিম শাহনেওয়াজ।