খেলাধুলার মাধ্যমে মাঠগুলোকে চাঙা রাখতে হবে

144

চুয়াডাঙ্গা জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যনির্বাহী পরিষদের সঙ্গে নবাগত ডিসি-এসপির মতবিনিময়
বিশেষ প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যনির্বাহী পরিষদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন নবাগত জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার ও পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে তিনটায় জাফরপুর নতুন স্টেডিয়ামের সম্মেলনকক্ষে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার শুরুতে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার ও সহসভাপতি চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামকে ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান করা হয়। এরপর জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার কার্যনির্বাহী পরিষদের সবার সঙ্গে পরিচিত হন ও উন্মুক্ত মতবিনিময় করেন। এ সময় জেলা প্রশাসক জেলা ক্রীড়া সংস্থার পূর্ববর্তী সভার পাঠ অনুমোদন ও বিগত সভার আয়-ব্যয়ের হিসাব উত্থাপন করে সবার সম্মতিক্রমে তা অনুমোদন করেন। সভার এজেন্ডা অনুযায়ী অনূর্ধ্ব-১৪ ক্রিকেট লিগ ও প্রথম বিভাগ ক্রিকেট শুরুর ব্যাপারে হাউসে আলোচনা শেষে তা সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হওয়ায় দুটি ক্রিকেট লিগ শুরুর অনুমতি প্রদান করেন ডিসি।
এ ছাড়া আলোচনায় উঠে আসে আন্তইউনিয়ন ফুটবল লিগ, ডিসি গোল্ডকাপ ফুটবল, হ্যান্ডবল লিগ, আসন্ন শীতকালের জন্য ব্যাডমিন্টন খেলাসহ অন্যান্য খেলাধুলার কথা। জেলা প্রশাসক মতবিনিময় সভার ফাঁকে ফাঁকে বলেন, ‘মাঠে যেন সব সময় কোনো না কোনো খেলাধুলা চলতেই থাকে। আপনারা সবাই মিলে কাজ করবেন। আমি নেপথ্যে থেকে সহযোগিতা করব। চুয়াডাঙ্গায় অনেকগুলো মাঠ পড়ে আছে। বিভিন্ন খেলাধুলার মাধ্যমে মাঠগুলোকে চাঙা রাখতে হবে।’ তিনি আরও জানান, জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের যৌথ উদ্যোগে ফুটবল লিগ খেলা হয়েছে এবং হবে। এ ক্ষেত্রে ডিএফএর সদস্যরা একই সঙ্গে জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের ভোটার অধিকার লাভ করবেন।
এ বিষয়ে জেলা ক্রীড়া সংস্থায় অন্য খেলার মাধ্যমে যাঁরা সদস্য পদ লাভ করেছেন, তাঁরা বলেন, ‘যৌথভাবে খেলা চালিয়ে ডিএফএর সদস্যরা দুই সংস্থায় ভোটার হওয়ার সুযোগ লাভ করবেন। তাহলে আমরা কেন দুই সংস্থায় ভোটার অধিকার পাব না।’ এ বিষয়ে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জেলা প্রশাসক সবাইকে থামিয়ে দিয়ে বলেন, গঠনতন্ত্রের ব্যাখা অনুযায়ী বিষয়টি পরিষ্কার করা হবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার, সহসভাপতি হুমায়ুন কবীর মালিক, মজিবুল হক মালিক মজু, সরোয়ার হোসেন জোয়ার্দ্দার মধু, এ নাসির জোয়ার্দ্দারসহ জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাহী সদস্যরা।