কোরআনের সুরক্ষায় শি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করছে চীনের মুসলিমরা

26

বিশ্ব প্রতিবেদন:
পবিত্র কোরআনের সুরক্ষায় প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছে চীনের মুসলিমরা। চীনের কমিউনিস্ট পার্টি সরকারের সঙ্গে দেশটির মুসলিমদের লড়াইয়ের খবর জানিয়েছে জিনিউজ। খবরে বলা হয়, সম্প্রতি কুরআন বাজেয়াপ্ত করার একটি বিষয় পুরো বিশ্বকে এক বিস্ময়কর অবস্থায় ফেলেছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- চীন সরকারের হাত থেকে বাঁচতে মুসলিমরা কুরআন নদীতে ফেলতে বাধ্য হয়েছে। রেডিও ফ্রি এশিয়াতে প্রকাশিত এমন প্রতিবেদনগুলো বিভ্রান্তিকর বলে জানো হয়েছে। এদিকে সম্প্রতি এমন ঘটনা দেশটির আলমাটির পানফিলভ জেলার আইদারলি গ্রাম ঘটেছে বলে জানা গেছে। সেখানে কয়েকজন মুসলিম কুরআন ইলির নদীতে নিমজ্জিত করেছে। এসব ঘটনা চীনের নিয়মিত ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। খবরে বলা হয়, চীন সরকারের হাত থেকে রক্ষা পেতে তারা পবিত্র গ্রন্থ প্লাস্টিক মোড়কে জড়িয়ে নদীতে ভাসিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছে। আর তারা বিশ্বাস করেন যে, এই কাজের মাধ্যমে কেবল নিজেকেই নয় বরং কোরআনের পবিত্রতাও রক্ষা করতে পারবে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, প্রেসিডেন্ট শি জনিপিং ক্ষমতায় আসার পর থেকে চীনে মুসলিম ও তাদের ধর্মীয় গ্রন্থের উপর হামলার অনেক ঘটনাই ঘটেছে। তারা পবিত্র কোরআনকে মাটির নিচে পুঁতে রাখে। সেই সঙ্গে তারা ধর্মীয় অনেক নথি নষ্ট করে দিয়েছে। রেডিও ফ্রির প্রতিবেদনে বলা হয়, মুসলমানরা কুরআনকে রক্ষা করতে সরকারের কাছ থেকে আড়াল করেছে। কিন্তু এমন মুসলিমরা ধরা পড়লেই তাদের পাঠানো হয়েছে এবং শাস্তি দেওয়া হয়েছে। এদিকে উইঘুর ও তুর্কি বিশেষজ্ঞরা, জিনজিয়াংয়ের মুসলমানদের জাতিগতভাবে নির্মূল করতে চীন সরকার এমন কাজে চালিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছে।