কৃষকদের প্রাপ্য মালামাল কৃষকদের মধ্যেই বিতরণ করতে হবে

31

দামুড়হুদা ও জীবননগরে কৃষকদের মধ্যে প্রণোদনা বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি টগর
সমীকরণ প্রতিবেদন:
দামুড়হুদা ও জীবননগরে কৃষকদের মধ্যে প্রণোদনা বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার পৃথক সময়ে এ কৃষি প্রণোদনা বিতরণ করা হয়।
দামুড়হুদা:
দামুহুদায় রবি ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় বিনা মূল্যে বীজ ও সার বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। দামুড়হুদা উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে এ বীজ ও সার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে গতকাল সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় দামুড়হুদা উপজেলা চত্বওে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মুনিম লিংকনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর।
আলোচনা সভায় এমপি টসর বলেন, ‘এক সময় আমাদের দেশের সাধারণ মানুষ ঠিকমতো ভাত খেতে পারত না। অভাব অনটনে দিন কাটাত। বাংলাদেশের বিগত দিনে কোনো সরকারই দেশের পরিবর্তন করতে পারেনি। শেখ হাসিনা রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসার পর ২০০৮ সালের পর থেকে জাদুর কাঠির মতো সবকিছু পরিবর্তন করেছে। এখন আমাদের দেশে সব রকম ভাতার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আগে আমাদের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কোনো সম্মান দেখানো হতো না। বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের সবরকম সম্মান প্রদর্শন করছে।’
আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন দামুড়হুদা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলী মুনছুর বাবু, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝণ্টু ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সদস্য শফিকুল আলম ইউছুপ, দামুড়হুদা হাউলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আবু সাঈদ খোকন প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে ৩ হাজার ১শ৭০ জন চাষিকে ভুট্টাবীজ, ২২০ জনকে সরিষার বীজ ও ২৭০ জন চাষিকে মরিচের বীজ দেওয়া হয় এবং সবাইকে বিনা মূল্যে সার দেওয়া হয়। অনুষ্ঠনের সার্বিক সঞ্চালনায় ছিলেন দামুড়হদা উপজেলা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা কাইজার আলী।
জীবননগর:
জীবননগরে প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে বিনা মূল্যে সার, বীজসহ বিভিন্ন ধরনের প্রণোদনা বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় জীবননগর উপজেলা পরিষদের হলরুমে এ বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে বিনা মূল্যে সার, বীজসহ বিভিন্ন প্রণোদনা বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি টগর বলেন, যারা প্রকৃতি কৃষক, তাঁদের যাচাই-বাছাই করে এসব উপকরণ বিতরণ করতে হবে। কার্ডবাজি বন্ধ করতে হবে। অনেক ব্যক্তি আছে, চাষ নেই, কিন্তু কার্ড নিয়ে লাফালাফি করে। ওই সব মানুষকে ছাটাই করে প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে এসব প্রণোদনা বিতরণ করতে হবে। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের কৃষকদের ভাগ্যেন্নয়নের জন্য প্রতিবছরে বিনা মূল্যে এ প্রণোদনা বিতরণ করছে। কিন্তু এক শ্রেণিরর মানুষ নিজেদের কথা চিন্তা করে বিভিন্ন সময়ে কার্ড নিয়ে কার্ডবাজি করছেন, এগুলোকে চিহ্নিত করতে হবে। যাতে কোনো প্রান্তিক কৃষক বাদ না পড়ে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। কৃষকদের প্রাপ্য মালামাল কৃষকদের মধ্যেই বিতরণ করতে হবে।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকী, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমিন সুলতানা, সীমান্ত ইউপি চেয়ারম্যান ময়েন উদ্দিন মঈন, কেডিকে ইউপি খাইরুল বাশার শিপলু ও মনোহরপুর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন খান।