কাশ্মিরে নতুন বিজ্ঞপ্তি নিয়ে জল্পনা

17

বিশ্ব ডেস্ক:
ভারত-চীন সংঘাত পর্বে কাশ্মিরে দুইটি নতুন বিজ্ঞপ্তি নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। ভারত-চীন সংঘাতের কারণেই এই বিজ্ঞপ্তি বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ভারত-চীন সীমান্ত সংঘাত অব্যাহত। দুই পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় বৈঠক হলেও এখনও পর্যন্ত কোনও স্থায়ী সমাধানের রাস্তা খোলেনি। তারই মধ্যে কাশ্মিরে সরকারের একটি বিজ্ঞপ্তি নতুন করে জল্পনা বাড়িয়েছে। জম্মু এবং কাশ্মিরের বড় কোম্পানিগুলিকে সরকার জানিয়েছে, আগামী দুই মাসের জন্য এলপিজি স্টক করে রাখতে হবে।
সাধারণত শীতকালে কাশ্মির এবং লাদাখে এ ধরনের বিজ্ঞপ্তি জারি করে সরকার। বরফ পড়ে রাস্তা বন্ধ হয়ে যাওয়ার জন্য এ ধরনের বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। কিন্তু গরম কালে কেন এই বিজ্ঞপ্তি জারি হলো, তা নিয়ে প্রবল জল্পনা শুরু হয়েছে। শুধু তাই নয়, লাদাখ সীমানার দিকে কাশ্মিরের একটি জেলায় আরও একটি বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে। ওই অঞ্চলের প্রতিটি সরকারি স্কুলকে অনুরোধ করা হয়েছে, সেনা জওয়ানদের থাকার জন্য স্কুল বাড়িগুলি যেন ছেড়ে দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন জম্মু এবং কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আব্দুল্লাহ। সরকার অবশ্য জানিয়েছে, দুইটি বিষয় নিয়েই আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই। জম্মু-শ্রীনগর হাইওয়ের ওপর বার বার ধস নামার কারণেই এলপিজি স্টক করার কথা বলা হয়েছে। এর সঙ্গে অন্য কোনও বিষয় জড়িয়ে নেই। সেনা বাহিনীর জন্য স্কুল বাড়ি ছেড়ে দেওয়ার প্রসঙ্গে সরকারের বক্তব্য, অমরনাথ যাত্রার জন্য এই বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে।
করোনার কারণে এ বছর প্রায় সমস্ত ধর্মীয় উদযাপনই বন্ধ রেখেছে সরকার। অমরনাথ যাত্রা নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। কিন্তু যাত্রা যে খুব বড় আকারে হবে না, তা একপ্রকার ধরেই নিয়েছেন সকলে। ফলে প্রতি বছর অমরনাথ যাত্রার জন্য যে অতিরিক্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হতো, এ বছর তা করতে হবে না। ফলে এত সংখ্যক সেনা জওয়ান কেন সেখানে নিয়ে যেতে হবে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।