কালেক্টরেট সহকারী সমিতির স্মারকলিপি পেশ

82

চুয়াডাঙ্গায় এক দফা দাবিতে এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দারের নিকট
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গায় এক দফা দাবিতে কালেক্টরেট সহকারীরা চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপির নিকট স্মারকলিপি প্রদান করেছেন। একই সঙ্গে ৯ম দিনের মতো কর্মবিরতি পালন করেছেন তাঁরা। ১৬ থেকে ১১ গ্রেডের কর্মচারীদের পদবি ও গ্রেড পরিবর্তন করে প্রজ্ঞাপন জারি হওয়ায় মাঠ প্রশাসনে কর্মরত ১৬-১১ গ্রেডের কর্মচারীদের পদবি পরিবর্তন অথবা সচিবালয়ের ন্যায় নিয়োগবিধি প্রণয়নের যৌক্তিক ও ন্যায়সঙ্গত দাবি দীর্ঘদিন বাস্তবায়িত না হওয়ায় কর্মচারীদের মধ্যে হতাশা ও অসন্তোষ বিরাজ কারায় এ কর্মসূচি পালন করা হয়। এ উপলক্ষে গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালি করে এমপি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুনের বাসভবন পর্যন্ত যার তাঁরা।
বাকাসস’র চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি ইসমাইল হোসেন বলেন, দাবি বাস্তবায়নের সুপারিশমালা প্রণয়নে গঠিত কমিটির সঙ্গে বারবার সাক্ষাত এবং যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে স্বারকলিপি, আবেদন-নিবেদন করলেও বাকাসস’র দাবি যৌক্তিক দেখিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ একমত পোষণ করার পরও দীর্ঘদিন ধরে তাঁদের দাবি বাস্তবায়িত হয়নি। পক্ষান্তরে একই প্রশাসনের অধীনে তহশীলদার ও সহকারী তহশীলদারদের পদ-পদবি পরিবর্তনসহ বেতন গ্রেড উন্নীত করা হয়েছে। তাছাড়া ইতোমধ্যে প্রাথমিক শিক্ষক, সমাজসেবা, পুলিশ বিভাগ, পরিসংখ্যান, অডিট, কৃষি, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরসহ প্রায় ২০ থেকে ২১ বিভাগ ১৬-১১ গ্রেডের কর্মচারীদের পদবি ও গ্রেড পরিবর্তন করে প্রজ্ঞাপন জারি হওয়ায় মাঠ প্রশাসনের কর্মরত ১৬-১১ গ্রেডের কর্মচারীদের পদবি পরিবর্তন অথবা সচিবালয়ের ন্যায় নিয়োগবিধি প্রণয়নের যৌক্তিক ও ন্যয়সঙ্গত দাবি দীর্ঘদিন বাস্তবায়িত না হওয়ার কর্মচারীদের মধ্যে চরম হতাশা ও ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে। বক্তারা আরও বলেন, অচিরেই দাবিগুলো বাস্তবায়ন করা না হলে ভবিষ্যতে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নীচে সকলে মিলে কর্মবিরতি পালন করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাকাসস’র চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সহসভাপতি নুরুল হুদা, রুমানা আক্তার, নজরুল ইসলাম, আব্দুল মালেক, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক, সহ-সাধারণ সম্পাদক আবু শাহিদুল্লাহ, অর্থবিষয়ক সম্পাদক জহুরুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন, নির্বাহী সদস্য গিয়াস উদ্দিন, আব্দুল লতিফ, জাহিদুল ইসলাম, জেসমিন আক্তার, এখলাছ হোসেন, জহির উদ্দিন মোহাম্মদ বাবর, মনোয়ারুল ইসলাম, শামীমা আরা, সাদিয়া ইসলাম প্রমুখ।