কালীগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে পৌর মেয়রের মতবিনিময়

102

প্রতিবেদক, কালীগঞ্জ:
কালীগঞ্জ শহরের বলিদাপাড়া গ্রামে ত্রাণসামগ্রী দিয়ে ফেরত নেওয়ার বিষয়টি সামাজিক ও গণমাধ্যমে ভূলভাবে অপপ্রচার হয়েছে বলে জানিয়েছেন কালীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর মেয়র আশরাফুল আলম আশরাফ। তিনি প্রকৃত ঘটনাটি তুলে ধরতেই গত বুধবার রাতে কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে জরুরিভাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় করেন। মতবিনিময়কালে পৌর মেয়র সাংবাদিকদের জানান, গত রোববার সন্ধ্যার আগে তিনিসহ এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সূবর্ণা রানী সাহা ওই গ্রামে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করতে যান। বিতরণ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করার পর এমপি ও মেয়র মাগরিবের নামাজ পড়তে যাওয়ার আগে বিতরণকারী দলীয় স্বেচ্ছাসেবক নেতৃবৃন্দদের তালিকা অনুযায়ী প্যাকেট প্রদানের নির্দেশ দিয়ে যান। সেখানে হতদরিদ্্র উপস্থিতিদের মধ্যে পৌর কর্তৃপক্ষের তালিকা অনুযায়ী ত্রাণ বিতরণ করে। কিন্তু ওই তালিকায় নাম না থাকা সুফিয়া ও সুন্দরী বেগম নামের দুই মহিলা এসে ওই ত্রাণের প্যাকেট হাতে নেন। এ সময় তালিকা অনুযায়ী ত্রাণের প্যাকেট কম পড়ায় বিতরণকারীর দায়িত্ব পালনকারী কালীগঞ্জ পেীর যুবলীগের সদস্য ওই গ্রামের সমির হোসেন সেখানে তাঁদের হাত থেকে ত্রাণের প্যাকেট দুটি নিয়ে নেন। পরে তাঁরা তালিকায় অন্তর্ভূক্তদের ওই প্যাকেট দুটি বিতরণ করেন। কিন্তু এ ঘটনাটি নিয়ে তাঁদের দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতেই একটি অসৎ চক্র সাংবাদিকদের ভূল তথ্য সরবরাহ করছে।
মতবিনিময়কালে উপস্থিত ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন জানান, তাঁর মাধ্যমে ওই দুই হতদরিদ্রকে তালিকা করে চাল দেওয়া হয়েছে। রোববার বিতরণের তালিকাতে তাঁদের নাম না থাকলেও ওই দুই মহিলা এসে ত্রাণ নেওয়াতে ঝামেলাটি বাধে। মতবিনিময়ে মেয়র ও কাউন্সিলর জানায়, সেখানে ত্রাণ দিয়ে কেউ ছবি তোলার পর তা কেড়ে নিয়েছে বলে প্রচারটি একেবারেই মিথ্যা বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। ওই দুই পরিবারই সরকারি তালিকাভুক্ত সুবিধাভোগী। তাঁরা এমন স্পর্শ্বকাতর ঘটনাগুলি সঠিকভাবে তুলে ধরতে সাংবাদিকদের প্রতি বিনীত আহ্বান জানান। এ ছাড়াও মেয়র আশরাফুল আলম আরও জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় নেতা-কর্মীদের নির্দেশনা দিয়েছেন, সুষ্টুভাবে ত্রাণ বিতরণ করতে হবে। আগে যারা সরকারি সুবিধা পেয়েছেন, তাদেরকে আপাতত বন্ধ রেখে এখনও যারা কোনো সরকারি সহায়তা পায়নি, সেসব অসহায় দরিদ্র পরিবারকে আগে ত্রাণ দিতে বলেছেন।
মতবিনিময়ে উপস্থিত ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার বলেন, কালীগঞ্জে উপজেলা প্রশাসনসহ সব জনপ্রতিনিধিরা জীবনের ঝুঁকি নিয়েও গ্রামে গ্রামে অসহায় মানুষের মধ্যে পৌঁছে সরকারি ত্রাণ বিতরণে সহায়তা করছে। সেখানে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনাকে অপব্যাখ্যা না করে তিনি সঠিক খবর তুলে ধরার আহ্বান জানান। পাশাপাশি তিনি এই মহামারি দূর্যোগে বিপদকে পিছে ফেলে মাঠে ময়দানে সাংবাদিকদের সাহসি ভূমিকার প্রশংসা করে বলেন, ‘আপনাদের মাধ্যমে জাতি সঠিক খবরটি জানতে চায়। এতে দেশের কল্যাণ বয়ে আসবে।’ মতবিনিময়ে আরও উপস্থিত ছিলেন, কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শিবলী নোমানীসহ স্থানীয় বিভিন্ন আঞ্চলিক ও জাতীয় দৈনিকের সাংবাদিকবৃন্দ।