কাওসার আলী শাহর মৃত্যু, স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন

17

দর্শনায় করোনা আক্রান্তে মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক নেতা
দর্শনা অফিস:
দর্শনায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক নেতা কাউসার আলী শাহর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে দর্শনা পৌর এলাকার দক্ষিণ চাঁদপুর নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত কাওসার আলী দর্শনা দক্ষিণ চাঁদপুর গ্রামের মল্লিক পাড়ার মৃত বদর উদ্দিন শাহ ওরফে বুদো শাহর ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন চুয়াডাঙ্গা জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সহসভাপতি ও দর্শনা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের গুরুত্বপূর্ন পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর।
পরিবার সূত্রে জানা যায়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মৃত কাওসার আলী শাহ দীর্ঘদিন ধরে হার্ট ও শারিরীক বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। গত রোববার বাড়িতে জ্বর, ঠাণ্ডা ও হাঁচি-কাঁশি বেড়ে গেলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে পরিবারের সদস্যদের করোনা সন্দেহ হলে তাঁকে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক করোনা উপসর্গ পাওয়ায় তাৎক্ষণিক তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পাঠায় এবং অসুস্থ কাওসার আলীকে হোম কোয়ারেন্টইনে থাকার পরামর্শ দেন। তিন দিন পরে গতকাল মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে দর্শনা পৌর এলাকার দক্ষিণ চাঁদপুর নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টানে থাকা অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। গতকালই বেলা সাড়ে তিনটার দিকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাড়ির পাশে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁর দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়েছে। দাফনকার্য সম্পন্ন করেন দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ও দর্শনা থানা পুলিশ।
এ বিষয়ে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের (টিএসও) ডা. আবু হেনা শেখ জামাল শুভ জানান, মৃত ওই ব্যক্তির করোনা উপসর্গ থাকায় গত রোববার নমুনা সংগ্রহ করে নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছিল। পরে গতকাল নমুনা পরীক্ষার ফলাফল আসার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়। যেহেতু করোনা উপসর্গ নিয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন, তাই মৃত ব্যক্তিকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়েছে। তবে গতকালই রাত নয়টার দিকে তাঁর নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজেটিভ আসে। তাই নিয়মানুযায়ী আজ পরিবারের সব সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। এছাড়া মৃত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।
দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁর দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়েছে এবং মৃত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।