করিমন-আলমসাধু মুখোমুখি সংঘর্ষে লেবার সর্দার গুরুতর আহত

74

দর্শনা অফিস:
দর্শনায় করিমন-আলমসাধুর মুখোমুখি সংঘর্ষে লেবার সর্দার গুরুতর আহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে দর্শনা-মুজিবনগর সড়কের কেরু অ্যান্ড কোম্পানির মিল গেইট-সংলগ্ন রাস্তার ওপরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামের আ. ছাত্তারের ছেলে লেবার সর্দার আনছার আলী (৪৭) গুরুতর আহত হন। এ সময় স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ঢাকায় রেফার্ড করেছেন।
জানা গেছে, গতকাল দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামের আ. ছাত্তারের ছেলে লেবার সর্দার আনছার আলী ঢাকার বিভিন্ন স্থানে কনস্ট্রাকশনের কাজের জন্য দর্শনা ও আশপাশ এলাকা থেকে বিভিন্ন কোম্পানিতে লেবার পাঠিয়ে থাকেন। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল তাঁর নিজ গ্রাম থেকে বেশ কয়েকজনকে ঢাকায় কাজে পাঠানোর উদ্দেশে করিমনযোগে দর্শনায় আসছিলেন। প্রথের মধ্যে দর্শনা রেলবাজারে ঝিনাইদহ লাইন পরিবহন কাউন্টারের সামনে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে দ্রুতগতিতে একটি আলমসাধু এসে ওই করিমনের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটায়। এ সময় করিমনের যাত্রী লেবার সর্দার আনছার আলী গুরুতর আহত হয়। স্থানীয় লোকজন তাঁকে দ্রুত উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়। এ সময়ের মধ্যে ঘাতক আলমসাধু পালিয়ে যায় বলে জানান স্থানীয় লোকজন।
এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সাজিদ হাসান জানান, রোগীর ডান পায়ে হাটুর কাছে গুরুতর জখম হয়েছে। পায়ের চামড়াসহ হাড় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাঁর উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। তাঁকে যত দ্রুত সম্ভব ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রোগীর পরিবারের সদস্যরা তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।