আ.লীগের পাঁচজনকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ

142

জীবননগর অফিস: জীবননগরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের পাঁচ কর্মীকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে। গত রবিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ঝাঝরি বেগমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত হয় আওয়ামী লীগ কর্মী সদর উপজেলার ঝাঝরি বেগমপুর গ্রামের আ. গনির ছেলে মোজাফফর হোসেন (৩৫), সোহরাব আলীর ছেলে আসরাফ আলী (৪৫), লাল মিয়ার ছেলে আলম (৪৫), মিজানুর রহমানের ছেলে সোহান (২২) এবং আত্তাব মন্ডলের ছেলে আজিজুল হক (৪০)। এ সময় স্থানীয় জনগন আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহত আসরাফ আলী অভিযোগ করে বলেন, যদুপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট দেয়ার জন্য সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভোট কেন্দ্রে গেলে বিএনপি-জামায়াতের একাধিক নেতাকর্মী আমাদের উপর হামলা চালায় এবং তাদের হাতে থাকা লাঠি দিয়ে আমাদের মাথায় আঘাত করে। এ সময় আমরা রক্তাক্ত হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে স্থানীয় জনগন আমাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মাহমুদ বিন হেদায়েদ সেতু বলেন, পাঁচজন রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে আসে তাদের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে এখন সকলে আশঙ্কামুক্ত। এদিকে গত রবিবার রাতে আহতদের দেখতে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ছুটে আসেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু মো. আ. লতিফ অমল, থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজাসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।