আলমডাঙ্গায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খালেকুরজ্জামানের বিরুদ্ধে দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ

189

আলমডাঙ্গা অফিস: আলমডাঙ্গা উপজেলার বিনোদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খালেকুরজ্জামানের বিরুদ্ধে দূর্নীতি, অনিয়মসহ তার বিরুদ্ধে ৪টি মামলা থাকায় এলাকাবাসী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষে নিকট গণস্বাক্ষর সম্বলিত একটি আবেদনপত্র দাখিল করেছে। জানা যায়, আলমডাঙ্গা উপজেলার ১১৩নং বিনোদপুর সরকারি প্রাথামিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খালেকুজ্জামানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী দরখাস্তে জানান, সে নিয়মিত বিদ্যালয়ে উপস্থিত থাকে না। তার বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা ম্যাজিষ্ট্রেট কোর্ট ও জর্জ কোর্ট মিলিয়ে ৪টি মামলা চলমান আছে। যান নং- জি আর-৬২/২০১৬, ২০৫/২০১১, ১৫৯/২০১৩, পিটিশন মামলা ৫০১/২০১৬ এই মামলাগুলোতে হাজিরা দেওয়ার জন্য বিনা ছুটিতে মাসে ৪দিন তাকে কোর্টে উপস্থিত হতে হয়। তার পরিপ্রেক্ষিতে স্কুলে পাটদান ব্যপকভাবে ব্যহত হচ্ছে। এছাড়াও তিনি নিজে একজন জামায়াতে ইসলামের নেতা। তার স্ত্রী জামায়াতের রোকন। ২জন এলাকায় সন্ত্রাসীদের মদদদাতা। ঐ সমস্ত সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে সরকারি প্রতিষ্ঠান যেমন রাস্তা, ওয়াবদার, ক্যানেলের গাছ কর্তন করে লক্ষ লক্ষ টাকার মালিক হয়েছে। যার প্রমাণ ৫/৭ বছর পূর্বে এই শিক্ষকের খড়ের ঘরের পরিবর্তে বর্তমানে পাকা বিল্ডিং করে সান শওকতের সাথে আরাম আয়েসে বসবাস করছে। এছাড়াও অত্র এলাকায় সরকারি অনুষ্ঠান, যেমন একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস, স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবস, এর কোন অনুষ্ঠান সে পালন করে না। অত্র বিদ্যালয়ের জন্য উন্নয়নের বাৎসরিক যে বরাদ্দ পাওয়া যায়, সেই  টাকা উন্নয়ন মূলক কাজ না করে সম্পূর্ণ নিজে আত্মসাৎ করে। এ বিষয়ে অত্র বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি মজিবর রহমান প্রতিবাদ করলে তাকে প্রধান শিক্ষক সন্ত্রাসীর দ্বারা বিভিন্ন হুমকি ধামকি দেয়। এ ব্যাপারে অত্র এলাকাবাসী এহেন একজন দূর্ণীতিবাজ, সরকার বিরোধী, ব্যাক্তির বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট এলাকাবাসী দাবি জানিয়েছে।