আলমডাঙ্গায় প্রবাসী স্ত্রীর আত্মহত্যা, অস্পষ্ট সুইসাইড নোট!

187

আলমডাঙ্গা অফিস:
আলমডাঙ্গা উপজেলার ভাঙবাড়িয়ার গ্রামের কুয়েত প্রবাসী আব্দুল আলীমের স্ত্রী সালমা খাতুন গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।
জানা গেছে, ভাঙবাড়িয়ার কাতব আলীর ছেলে আব্দুল আলিম প্রায় ১০ বছর আগে পার্শ্ববর্তী বন্দরভিটার আব্দুস সালামের মেয়ে সালমা খাতুনকে বিয়ে করেন। তাঁদের রয়েছে এক সন্তান। বিয়ের আগে থেকেই আব্দুল আলিম বিদেশ থাকতেন। বিয়ের পর আবার বিদেশ চলে গেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল আটটার দিকে এক পাওনাদার বালুর ক্রয়ের পাওনা টাকা নিতে গিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে প্রবাসীর স্ত্রীকে ঝুঁলতে দেখে প্রতিবেশীদের সংবাদ দেন। পরে প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় লাশ নিচে নামানো হয়। তবে কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন, সে সম্পর্কে কেউ তেমন তথ্য দিতে পারেনি। তিনি আত্মহত্যার আগে অস্পষ্ট একটি সুইসাইড নোটে লিখে গেছেন ‘আমার আত্মহত্যার জন্য কেউ দায়ী নয়। আমার মেয়ে আলিশাকে রেখে গেলাম। তুমি ওকে কখনো কষ্ট দিওনা এবং আমি যে নেই, মেয়েকে কখনো বুঝতে দিওনা।’ পরে সালমা খাতুনের লাশ বাবার বাড়ি বন্দরভিটায় নিয়ে দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়েছে।