আলমডাঙ্গায় জামাই শ্বাশুড়ীর রমরমা মাদকব্যবসা : প্রশাসনের নিরব ভুমিকা

191

নিজস্ব প্রতিবেদক: আলমডাঙ্গায় আবারো মিনি রমরমা মাদক ব্যবসা গড়ে তুলেছে। প্রশাসনকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে আলমডাঙ্গার শহর কেন্দ্রিক রেল ষ্টেশনের সংলগ্নে রমরমা মাদকের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছে এলাকাবাসী। এবার মাদকব্যাবসায়ী মিনির সাথে সহযোগি হিসাবে ছোটজামাই আহাদকে সাথে নিয়ে ইয়াবা ও হেরোইনের মত মারাত্মক মাদকের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এতে এলাকাবাসী এসব ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন প্রকার আইন প্রয়োগ করা হয় না। অভিযোগকারীরা দাবি করে বলেন বিভিন্ন প্রশাসনকে টাকার মাধ্যমে মেনেজ করে মাদক বিক্রয়ের অনুমোদন দিয়ে থাকে। উল্লেখ্য, কয়েক মাস পূর্বে জামাই আহাদ ও শ্বাশুড়ী জেল থেকে ছাড়া পেয়ে আবারো মাদক ব্যবসায় যুক্ত হয়েছে। সকাল থেকে সন্ধ্যা হলেই, আলমডাঙ্গার রেল ষ্টেশন সংলগ্নে বসে মাদকের হাট। এসব হাটের সন্ধান এলাকাবাসী জানলেও জানে না প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষ তাই এসব মাদকের সরবরাহ হয়ত একদিন ক্রমেই আলমডাঙ্গায় বড় রূপ ধারণ করবে। এব্যাপারে মাদক ব্যবসায়ীর সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি সকলকে মেনেজ করে মাদক ব্যবসা করছি। যদি কোন সাংবাদিক আমাদের নামে নিউজ করে তাহলে তাকে দেখে নেব। আলমডাঙ্গা থানার ওসি সাথে কথা বললে জানাই, যদি কেউ আবার নতুন করে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত হয় তবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব। তাই এলাকাবাসীর দাবী মাদক ব্যাবসায়ী মিনি ও জামাই আহাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ একান্তই প্রয়োজন।