আলমডাঙ্গায় খাস জমির অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ

377

আলমডাঙ্গা অফিস: আলমডাঙ্গার জামজামী ইউনিয়নের ঘোষবিলা ও রঘুনাথপুর গ্রামে আদালতের নির্দেশে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে খাস জমির অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ ও সরকারী জমি উদ্ধার করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো. জসিম উদ্দীনের আদালতে সহকারী কমিশনার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুচিত্র রঞ্জন দাস নিয়োগপ্রাপ্ত হয়ে সরকারী এই খাসজমি থেকে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদে নেতৃত্ব দেন। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উচ্ছেদ অভিযানের ফলে অবৈধ দখলমুক্ত হয় এই সরকারী খাস জমি। উদ্ধারকৃত জমির সীমানায় লাল পতাকা টাঙিয়ে দেয় প্রশাসন।
জানা গেছে, আলমডাঙ্গার জামজামি ইউনিয়নের ঘোষবিলা রঘুনাথপুর মৌজার দাগ নং ৩৩, ১নং খতিয়ান ভুক্ত ২৯ শতাংশ জমি ও একই মৌজার গঙ্গাস্থান নামে পরিচিত জমি ১৫৪ দাগে, ১নং খতিয়ান ভুক্ত ৮৭ শতক জমি দীর্ঘ কয়েক যুগ ধরে আলমডাঙ্গার জামজামি ইউনিয়নের ঘোষবিলা গ্রামের মৃত মহি উদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে মিঠু উদ্দিন বাউল, মৃত বাকের আলীর ছেলে আমিন উদ্দিন, রবিউল ইসলামের ছেলে আতিয়ার রহমান। সর্বসাং ঘোষবিলা ও রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত ফুনি মন্ডলের ছেলে আশরাফুল হক। আর.এস ৫৪ দাগে ০.৮৭০০ একর ও ৩৩ দাগের ০.২৯ একর জমিতে অবৈধভাবে ঘরবাড়ি করে বসবাস করে আসছে। দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজেষ্ট্রেট সুচিত্র রঞ্জন দাস জানান, আদালত ১নং খতিয়ান ভুক্ত এই জমির অবৈধ দখলদার উচ্ছেদে বারবার নোটিশ দেওয়া সত্বেও অবৈধ এই সব দখলদারগণ ছিলেন অনড়। সরকারী এই খাসজমি উদ্ধার অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জেলা আদালতের পেশকার আব্দুল লতিফ, জামজামি ইউনিয়নের ঘোষবিলা ভূমি অফিস ভূমি কর্মকর্তা আতিকুর রহমান, অফিস সহকারী আশরাফুল আলম, সার্ভেয়ার আবু সালেহ, থানার এস.আই মহব্বত আলী, এস.আই অচিন্ত সঙ্গীয় ফোর্সসহ উপস্থিত ছিলেন।