আলমডাঙ্গার মাজু গ্রামের পুরাতন জামে মসজিদ কমিটির সংবাদ সম্মেলন

98

আলমডাঙ্গা অফিস:
আলমডাঙ্গা মাজু গ্রামের পুরাতন জামে মসজিদের মালিকানা দাবি করে মুসল্লিদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা ও সামাজিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মাজু গ্রামবাসী। গ্রামের আবুল কাশেম গংয়ের বিরুদ্ধে গতকাল শুক্রবার আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মসজিদ কমিটির সভাপতি ডা. ইসাহাক আলী বলেন, ‘আমাদের মাজু গ্রামে প্রায় ২ শ বছর পূর্বে মসজিদ নির্মাণ করা হয়। ১৯৬৩ সালে মসজিদের নামে জায়গা মৃত খন্দকার আবুল হাসান সোনা মিয়ার কাছ থেকে খোস কবলায় মসজিদের নামে রেজিস্ট্রি করা হয় (৭৬ নং মাজু মৌজায় দাগ নং ২৪৭, খতিয়ান নং ৪১৭, বর্তমান দাগ নং ২০৪, খতিয়ান নং ৯২)। উক্ত মসজিদের জায়গা মাজু গ্রামের মৃত আব্দুল ওয়াদুদের ছেলে আবুল কাশেম, আবু বক্কর, আবুল হাসেম ও মিঠু এ ব্যক্তিরা মসজিদ নির্মাণকাজে বাধা প্রদান করে মসজিদের জায়গা তাদের নিজেদের বলে দাবি করছে। শুধু তাই নয়, তারা সংঘবদ্ধভাবে মুসল্লিদের মসজিদে নামাজ আদায় করতে বাধা প্রদান করছে। উল্লেখিত চার ব্যক্তি মসজিদ কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকের নিকট ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করছে। টাকা না দিলে মসজিদে তালা লাগিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে। তাদের ভাই আবু বক্কর একজন মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবী। তারা এক সময়ের সন্ত্রাসী সিরাজ বাহিনীর সক্রিয় সদস্য হওয়ায় এলাকার লোকজন তাদের ভয়ে ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। তারা প্রতিনিয়ত মুসল্লিদের হুমকি দিচ্ছে। এমতাবস্তায় মসজিদ কমিটির সব সদস্যসহ মুসল্লিরা সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে প্রশাসনের নিকট মসজিদ রক্ষা ও সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছে।’
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মসজিদ কমিটির সভাপতি ডা. ইছাহাক আলী, সাধারণ সম্পাদক নওসাদুজ্জামান, আবু সাঈদ, আবু মোনায়েম সরকার, রোকনুজ্জামান নাহিদ, জহুরুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম, আব্দুল মজিদ, গফুর মেম্বার, ইন্তাল উদ্দিন, ফারুক হোসেন, হাফিজুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা নেকবার আলী প্রমুখ।