আম এখন ফিলিপাইনের গলার কাঁটা

85

বিশ্ব ডেস্ক:
মিষ্টি হলেও আম এখন গলার কাঁটা হয়ে উঠেছে ফিলিপাইনের। ২০ লাখ কেজি অতিরিক্ত আম নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে দেশটির কৃষি মন্ত্রণালয়। কৃষিমন্ত্রী ইমানুয়েল পিনল জানিয়েছেন, আম চাষীরা জানিয়েছেন চলতি বছর আমের অপ্রত্যাশিত অতিরিক্ত ফলন হয়েছে। এর জন্য তারা জলবায়ু পরিবর্তনে এল নিনোকে দুষছে, যার ফলে চলতি বছর অতিরিক্ত গরম ও শুস্ক আবহাওয়া ছিল। দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ফিলিপাইনের লুজন দ্বীপেই ২০ লাখ কেজি অতিরিক্ত আম রয়েছে। অতিরিক্ত সরবরাহের কারণ এবার আমের দাম কেজিতে ৮৮ পেসো (ফিলিপাইনের মুদ্রা) থেকে নেমে ২৫ পেসোতে চলে এসেছে। পিনল জানান, ফলগুলো পঁচে যাওয়ার এবং দামের আরো অধোগতির আগেই পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য চাপ আসছে। তিনি বলেন, ‘আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে আমাদেরকে কিছু একটা করতে হবে।’ ইতোমধ্যে অতিরিক্ত আম যাতে পঁচে নষ্ট হয়ে না যায় সেজন্য কৃষি মন্ত্রণালয় ‘মেট্রো ম্যাঙ্গো’ নামের একটি প্রচারণা শুরু করেছে। এতে লাখ লাখ কেজি আম মেট্রো ম্যানিলাতে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত হয়েছে। ব্যাপক হারে আম বিক্রির জন্য রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে দোকান বসানো হচ্ছে। খুচরা বিক্রেতাদের জন্য টাটকা আম ২৫ থেকে ৫০ পেসোতে বিক্রি এবং পাইকারি কিনলে আরো কমে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এছাড়া আম দিয়ে নানা পদ তৈরির জন্য রান্না শেখানোর ক্লাস চালু করেছে মন্ত্রণালয়। অতিরিক্ত আম উৎপাদনকারী অঞ্চল লুজনে চাষীরা বিনামূল্যে আম বিতরণ শুরু করেছে। কেউ কেউ তাদের খামারের বাইরে ব্যাগভর্তি করে অতিথিদের বিনামূল্যে আম দিচ্ছে। একটি জাপানি প্রতিষ্ঠান অবশ্য এক লাখ কেজি আম কেনার ঘোষণা দিয়েছে। বাকী ১৯ লাখ কেজি আমের কী হবে সেটাই ভাবাচ্ছে এখন ফিলিপাইনের কৃষি মন্ত্রণালয়কে।