আজ রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ

78

সমীকরণ প্রতিবেদন:
মহান বিজয় দিবসের প্রাক্কালে আজ রোববার বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিরোধিতাকারী রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করবেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক। একইসঙ্গে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের একটি তালিকাও প্রকাশ করবেন তিনি। সচিবালয় সংলগ্ন সরকারি পরিবহন পুল ভবনের ৬ তলায় অবস্থিত মুক্তিযুদ্ধ বিষযক মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই তালিকাগুলো ঘোষণা করা হবে। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা সূফি আব্দুল্লাহ হিল মারুফ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন। গতকাল শনিবার বিভিন্ন গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিনি আরও জানিয়েছেন, আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী একই সঙ্গে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাও (প্রথম পর্ব) প্রকাশ করবেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রোববার যে তালিকা মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী প্রকাশ করবেন তা নতুন কিছু নয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে অতীতে সংগ্রহ করা একাত্তরের রাজাকার বাহিনীর সদস্য হিসেবে যারা ভাতা নিয়েছে বা যাদের নামে অস্ত্র এসেছে, তাদের নাম-পরিচয়, ভূমিকাসহ যেসব তথ্য স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশের গোয়েন্দা সংস্থার কাছে ছিল সেই তথ্য ধরে করা তালিকাই তিনি আবার প্রকাশ করবেন। এরপর পর্যায়ক্রমে অন্য ঘাতক বাহিনীর সদস্যদের তালিকাও প্রকাশ করা হবে বলে মন্ত্রীর দফতর সূত্রে জানা গেছে।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক জানিয়েছেন, এটি নতুন কোনও তালিকা নয়। বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী রাজাকারদের তালিকা আগে থেকেই রয়েছে। রাজাকার হিসেবে যারা যারা ভাতা নিয়েছে, রাজাকার হিসেবে যাদের নামে অস্ত্র এসেছে, স্থানীয় প্রশাসনের কাছেও অনেক নাম রয়েছে, যারা রাজাকার হিসেবে ১৯৭১ সালে পাকিস্তান বাহিনীকে সাহায্য সহযোগিতা করেছে-সেসব নাম জোগাড় করেই এই তালিকা আগে থেকেই ছিল। সেই তালিকা ধরেই প্রথম পর্ব প্রকাশ করা হবে। পর্যায়ক্রমে রাজাকারদের আরও তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানান তিনি। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী মোজাম্মেল হক জানিয়েছেন, নতুন প্রজন্মকে জানাতেই স্বাধীনতার বিরোধিতাকারী রাজাকারদের নাম প্রকাশের এমন উদ্যোগ সরকার নিয়েছে। এসময় মুক্তিযোদ্ধাদের যে তালিকা আগে থেকেই রয়েছে তার একটি অংশও তিনি তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন।