আজ থেকে চুয়াডাঙ্গাসহ সারাদেশে এইসএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু: শুরুতে বহু নির্বাচনি পরে রচনামূলক অংশ অনুষ্ঠিত হবে

285

এস, এম শাফায়েত: আজ ২ এপ্রিল রবিবার থেকে সারাদেশে একযোগে শুরু হচ্ছে ২০১৭ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। গত কয়েক বছর ধরে ১ এপ্রিল এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হলেও এবার ওইদিন শনিবার হওয়ায় একদিন পরে এই পরীক্ষা শুরু হচ্ছে।
সূচি অনুযায়ী আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের আওতায় ২ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ে এ পরীক্ষা চলবে ১৫ মে পর্যন্ত। এইচএসসির তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষে পরদিন ১৬ থেকে ২৫ মে পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে ব্যবহারিক পরীক্ষা। গত বছর উচ্চ মাধ্যমিকের তত্ত্বীয় পরীক্ষা ৩ এপ্রিল শুরু হয়ে শেষ হয় ৯ জুন।  পরীক্ষা নেওয়া হয় হয় ৬৮ দিনে। এবার ২৪ দিন সময় কমিয়ে ৪৪ দিনের পরীক্ষা সূচি সাজানো হয়েছে। আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে এবার এ পরীক্ষায় ১১ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জন শিক্ষার্থী অংশ নেবে। সকাল ১০টায় পরীক্ষা শুরু হয়ে চলবে দুপুর ১টা পর্যন্ত। বিকেলের পরীক্ষা হবে ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত। গত বছর মোট পরীক্ষার্থী ছিলো ১২ লাখ ১৮ হাজার ৬২৮ জন। গত বছরের তুলনায় এবার পরীক্ষার্থী কমেছে ৩৪ হাজার ৯৪২ জন।
তবে ধরণ বদলেছে পরীক্ষা নেওয়ার, এবার পরীক্ষার শুরুতে বহু নির্বাচনি (এমসিকিউ) অংশ এবং পরে রচনামূলক অংশ অনুষ্ঠিত হবে। বহু নির্বাচনি পরীক্ষায় ৩০ নম্বরের জন্য ৩০ মিনিট এবং ৭০ নম্বরের সৃজনশীল পরীক্ষার সময় আড়াই ঘণ্টা নির্ধারণ করা হয়েছে। যেসব বিষয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষা রয়েছে সেগুলোর ২৫ নম্বরের বহু নির্বাচনি পরীক্ষার সময় ২৫ মিনিট। সৃজনশীল অংশের জন্য সময় নির্ধারণ করা হয়েছে দুই ঘণ্টা ৩৫ মিনিট।
পরীক্ষাসংক্রান্ত বিশেষ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, পরীক্ষার্থীরা সাধারণ সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবেন তবে প্রোগামিং ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবেন না। পরীক্ষার সময় কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। আর কোনও পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন আনতেও পারবে না।
পরীক্ষা সূচি অনুযায়ী, এবার এইচএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ১৬ মে থেকে ২৫ মে পর্যন্ত। প্রথম দিন অনুষ্ঠিত হবে বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র, সহজ বাংলা প্রথম পত্র, বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশের সংস্কৃতি প্রথম পত্র, বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র (ডিআইবিএস) পরীক্ষা।
মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের আওতায় আলীম পরীক্ষা আজ থেকে একযোগে শুরু হয়ে চলবে ৩ মে পর্যন্ত।  ব্যবহারিক পরীক্ষা ১১ মে’র মধ্যে শেষ হবে।  প্রথম দিন কুরআন  মাজিদ বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
এছাড়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় এইচএসসি (ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা) পরীক্ষা একই সময়ে শুরু হয়ে শেষ হবে ২৯ এপ্রিল। ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ৩ মে থেকে ১১ পর্যন্ত। প্রথম দিন বাংলা-১ (নতুন সিলেবাস) ও বাংলা-২ (পুরাতন সিলেবাস) সকালে এবং বাংলা-১ (সৃজনশীল নতুন সিলেবাস) ও বাংলা-২ (সৃজনশীল পুরাতন সিলেবাস) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।  কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় দেশের ৬৪টি সরকারি স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে একযোগে এইচএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষা আজ শুরু হবে।  চলবে ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত। ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ১৮ এপ্রিল থেকে ২৬ এপ্রিল। প্রথমদিন বাংলা-২ (সৃজনশীল) সকালে এবং বাংলা-১ (সৃজনশীল) বিকালে অনুষ্ঠিত হবে। কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের আওতায় ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স পরীক্ষা আজ শুরু হয়ে চলবে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত। প্রথমদিন সকালে বাংলা-২ এবং বিকালে বাংলা-১ (সৃজনশীল) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
এর আগে ২ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পরীক্ষার সময়সূচি অনুমোদন দেওয়া হয়। এরপর শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, নকলমুক্ত ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রশ্নপত্র ফাঁসের সুযোগ নেই।
এবার চুয়াডাঙ্গায় ১১টি কেন্দ্রে ২৩টি সরকারি, আধাসরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ৮হাজার ৬১০জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। এরমধ্যে সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের আওতায় ৬ হাজার ৪৫৪জন, কারিগরী শিক্ষা বোর্ডের ১৬২জন, বিএম শাখায় ১হাজার ৫৯৪জন ও দাখিল পরীক্ষার্থী ৪০০ জন অংশ নেবে। চুয়াডাঙ্গার জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, নকল মুক্ত সুষ্ঠ ও সুন্দর পরিবেশে পরীক্ষা গ্রহণের সকল প্রস্তুতিই নেওয়া হয়েছে। পরীক্ষা কেন্দ্র গুলোর আশপাশে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে। অসৎ উদ্যেশ্য গ্রহণ করলে কেউ ছাড় পাবে না।