অবশেষে চলচ্চিত্রে মেহ্জাবীন

35

বিনোদন প্রতিবেদন
দর্শক চান, পরিচালকও চান। অথচ মেহ্জাবীন চৌধুরী সিনেমায় অভিনয় করতে চান না। নাটক, টেলিছবিই তাঁর স্বাচ্ছন্দ্যের জায়গা। এমনকি বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করতেও ভালোবাসেন তিনি। তবে শেষ পর্যন্ত রাজি করানো গেছে তাঁকে। সম্প্রতি একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে সম্মত হয়েছেন তিনি। ছবির নাম ‘জায়া’, তৈরি হতে যাচ্ছে একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্য। মেহ্জাবীন চৌধুরীর জন্য এটি নতুন অভিজ্ঞতা। তিনি বলেন, ‘এর আগে ওয়েব ফিল্মে কাজ করা হয়নি। গল্পটা শুনে কাজটি করতে রাজি হয়েছি। তা ছাড়া ওয়েব ফিল্ম ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পায়, যা সারা পৃথিবীর মানুষ দেখতে পারে। এ জন্য বিশেষ যত্ন নিয়ে এ ধরনের ফিল্ম তৈরি করা হয়। কাজগুলোয় আন্তর্জাতিক মান ধরে রাখার চেষ্টা থাকে।’ এক তরুণীর পারিবারিক জীবনের গল্প নিয়ে ‘জায়া’ ছবির গল্প। পরিচালনা করবেন শিহাব শাহীন। তিনি জানান, আগামী ১৫ অক্টোবর ছবিটির শুটিং শুরু করবেন তিনি। ‘জায়া’য় মেহ্জাবীনের বিপরীতে অভিনয় করবেন আফরান নিশো।
যদিও মেহ্জাবীনের ক্যারিয়ারে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অভিনয়শিল্পী অপূর্ব। তবু নিশোর সঙ্গেই চলচ্চিত্র শুরু করলেন তিনি। অপূর্বর সঙ্গে জুটি বেঁধেই সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছেন মেহ্জাবীন। এমনকি করোনাকালে একত্রে কাজ করতে গিয়ে কোয়ারেন্টিন পর্বও পাড়ি দিতে হয়েছে তাঁকে। তখনকার অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করতে গিয়ে মেহ্জাবীন জানিয়েছিলেন, ‘কী এক দুঃসহ ব্যাপার। দরজা বন্ধ করে একলা এক রুমে থাকছি। একই বাসায় থেকে পরিবারের কারও সঙ্গে দেখা করা যাচ্ছে না। ইচ্ছা করলেও কারও কাছে যাওয়া যাচ্ছে না। দরজার বাইরে খাবার রেখে দেওয়া হচ্ছে। সেই খাবার নিয়ে নিজের ঘরে একা বসে খেতে হচ্ছে। খাবার শেষে বাসনগুলো নিজে ধুতে হচ্ছে। মন চাইলে রুমে বসেই ফোনে বলতে হচ্ছে পরিবারের সবার সঙ্গে। কী যে এক যন্ত্রণা, বলে বোঝানো যাবে না। খুব মানসিক কষ্টে আছি।’